মেইন ম্যেনু

ফের বাড়ছে জ্বালানি তেলের দাম

যুক্তরাষ্ট্রে জ্বালানি তেলের মজুদ কমেছে। দেশটি ফের মজুদ বাড়াবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। এতে বিশ্ববাজারে বেড়েছে জ্বালানি তেলের দাম।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের (ডব্লিউএসজে) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সকালে এশিয়ার বিভিন্ন বাজারে জ্বালানি তেল (ব্রেন্ট ক্রুড) ব্যারেলপ্রতি ৫০ ডলারের ওপরে লেনদেন হয়েছে। গত বছরের নভেম্বরের পর এটিই ছিল পণ্যটির সর্বোচ্চ দাম।

বৃহস্পতিবার সকালে লন্ডন আইসিই ফিউচার এক্সচেঞ্জে ব্যারেলপ্রতি জ্বালানি তেল (জুলাইয়ের জন্য বিক্রয়যোগ্য) ৫০ ডলার তিন সেন্টে লেনদেন হয়েছে। আগের দিনের চেয়ে দাম বেড়েছে ২৯ সেন্ট।
সম্প্রতি নিউইয়র্ক মার্কেন্টাইল এক্সচেঞ্জে লাইট, সুইট ক্রুডের ফিউচার লেনদেন হয়েছে ৪৯ ডলার ৭৮ সেন্টে।

ডব্লিউএসজের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, দুই বছর ধরে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দরপতন হয়েছে। তবে সম্প্রতি সরবরাহ কমে যাওয়ায় এবং চীন ও ভারতে চাহিদা বাড়ায় এশিয়ার বাজারে ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে তেলের দাম। গত ফেব্রুয়ারিতে জ্বালানি তেলের দাম প্রায় ১২ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন ছিল। বর্তমানে তার চেয়ে প্রায় ৮০ শতাংশ বেড়েছে পণ্যটির দাম।

বিশ্বের বৃহত্তম বিনিয়াগ ব্যাংক গোল্ডম্যান স্যাকস গত বছর পূর্বাভাস করেছিল, জ্বালানি তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি ২০ ডলারে নামবে। কিন্তু তেলসমৃদ্ধ দেশগুলো সাম্প্রতিক সময়ে সরবরাহ কমিয়ে দেওয়ায় আবারও ঊর্ধ্বমুখী হয়ে উঠছে পণ্যটির দাম।






মন্তব্য চালু নেই