মেইন ম্যেনু

ফেলপস ভাঙলেন ২০০০ বছরের পুরোনো রেকর্ড

নিজেকে নতুন করে চেনানোর মতো কোনো কিছুই বাকি নেই মাইকেল ফেলপসের। যুক্তরাষ্ট্রের সাঁতারু এমন কিছু রেকর্ড গড়ে যাচ্ছেন, যা ভাঙা অনেক কঠিনই হবে আগামী প্রজন্মের জন্য! তবে সেই রেকর্ড অক্ষণ্ন থাকবে কি না, তা নিয়েও রয়েছে ঘোর সন্দেহ। কারণ, ফেলপসই তো প্রমাণ করে যাচ্ছেন- রেকর্ড গড়া হয় ভাঙার জন্য। রিও অলিম্পিকে মার্কিন এই অ্যাথলেট যেমন ভাঙলেন ২০০০ বছরের পুরোনো রেকর্ড।

প্রাচীন অলিম্পিকে খ্রিষ্টপূর্ব ১৫২ সালের অলিম্পিকে ১২তম ব্যক্তিগত সোনা জিতেছিলেন লিওনিদাস অব রোডস। আধুনিক অলিম্পিকে ১৩টি ব্যক্তিগত সোনা জিতে সেই রেকর্ডটি এককভাবে নিজের দখলে নিলেন ফেলপস। এ ছাড়া অলিম্পিক ইতিহাসে সাঁতারে ব্যক্তিগত কোনো ইভেন্টে টানা চারটি সোনা জিততে অনন্য রেকর্ড গড়লেন এই জলদানব। অলিম্পিক ইতিহাসে আর কোনো সাঁতারু কোনো ব্যক্তিগত ইভেন্টে টানা চারটি সোনা জিততে পারেননি।

চলমান রিও অলিম্পিকে নিজের চতুর্থ ইভেন্ট ২০০ মিটার ব্যক্তিগত মিডলে জাপানের কোসুকে হাগিনোকে হারিয়ে স্বর্ণ জিতলেন মাইকেল ফেলপস। এ নিয়ে অলিম্পিকে যুক্তরাষ্ট্রের এই তারকার স্বর্ণের সংখ্যা দাঁড়ালো ২২-এ। ক্যারিয়ারের শেষপ্রান্তে এসে ৩১ বছর বয়সী ফেলপসের ঝুলিতে জমা পড়েছে অলিম্পিকের ২২টি সোনা, ২টি রুপা ও ২টি ব্রোঞ্জ নিয়ে মোট ২৬টি পদক। সোনার তুলনায় রুপা ও ব্রোঞ্জর সংখ্যাটা ধারেকাছেও নেই। সত্যিই অসাধারণ!






মন্তব্য চালু নেই