মেইন ম্যেনু

ফেসবুকের ‘স্প্যাম রাজার’ দুই বছরের কারাদণ্ড

ফেসবুক ব্যবহারকারীদের কাছে ২ কোটি ৭০ লাখের বেশি স্প্যাম ইমেইল ছড়িয়েছেন তিনি।

আর তাই তার ডাক নাম হয়ে গিয়েছিল ‘স্প্যাম কিং’ বা ‘স্প্যাম রাজা’। তবে এখন সেই রাজাকে দুই বছরের জন্য কারাগারে যেতে হচ্ছে।

সেই সঙ্গে তাকে তিন লাখ ১০ হাজার ডলার জরিমানাও গুনতে হবে।

এই স্প্যাম রাজার সত্যিকারের নাম স্যানফোর্ড ওয়ালেস।

যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসের বাসিন্দা, ৪৭ বছর বয়সী স্যানফোর্ড ওয়ালেসের বিরুদ্ধে স্প্যাম ছড়ানোর অভিযোগ আগে মার্কিন ফেডারেল তদন্তকারীরা।

তার বিরুদ্ধে ইন্টারনেটে প্রতারণার অভিযোগও আনা হয়।

ব্যবহারকারীর সঙ্গে কোনরকম সম্পর্ক না থাকলেও, বিজ্ঞাপনী ও প্রতিষ্ঠানের প্রচারণামুলক যেসব ইমেইল ব্যাপক মাত্রায় পাঠানো হয়, সেগুলোকে স্প্যাম ইমেইল বলা হয়। একই ধরণের এসব বার্তা একই সঙ্গে অনেক মানুষের কাছে পাঠানো হয়।

ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করে, তাদের একাউন্ট ও ইমেইল ব্যবহার করে অন্যদের কাছে এরকম ইমেইল পাঠাতেন মি. ওয়ালেস।

২০০৮ থেকে ২০০৯ সালের দিকে এসব স্প্যাম ইমেইল পাঠানো হয়। বিপুল পরিমাণ স্প্যাম ছড়ানোর ঘটনা দেখার পর এফবিআই তদন্তে নামে।

মার্কিন অ্যাটর্নি অফিস বলছে, ফেসবুক ব্যবহারকারীদের সম্পর্কে নানা তথ্য অবৈধভাবে সংগ্রহ করেছেন মি. ওয়ালেস, সেগুলো তিনি মজুদ করে রেখেছেন আর নিজের স্বার্থে ব্যবহার করেছেন।বিবিসি বাংলা






মন্তব্য চালু নেই