মেইন ম্যেনু

ফেসবুকে খবর পেয়ে বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন জেলা প্রশাসক

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিনের ফেসবুক আইডিতে বাল্যবিবাহের খবর পেয়ে নগরীর বাকলিয়া থানার রাজাখালি এলাকার একটি কম্যুনিটি সেন্টারে অভিযান চালিয়ে বিয়েটি বন্ধ করে দিয়েছে জেলা প্রশাসন পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জেলা প্রশাসকের নির্দেশে শনিবার বিকেলে এ অভিযান পরিচালনা করেন চট্টগ্রাম সদর সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম রিমেল।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম রিমেল বলেন, ‘জেলা প্রশাসক স্যার তাঁর ফেসবুক আইডি “জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চট্টগ্রাম”র একজন ফ্যানের করা পোষ্টের মাধ্যমে বাল্যবিবাহের খবর জানতে পারেন। ওই পোষ্টে জানানো হয়, বাকলিয়া থানার রাজাখালি এলাকায় এক অপ্রাপ্তবয়স্ক স্কুল ছাত্রীকে বিয়ে দেয়া হচ্ছে। পরে জেলা প্রশাসক স্যারের নির্দেশে গতকাল (শনিবার) বিকেলে স্থানীয় গুলবাহার কম্যুনিটি সেন্টারে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে দেখা যায় জাহেদা হাসান (১৫) নামে এক স্কুল ছাত্রীর বিয়ের অনুষ্ঠান চলছে। এসময় বাল্যবিবাহটি বন্ধ করে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।’

তিনি আরো বলেন, ‘এসময় উপস্থিত অভিভাবকরা মেয়ের বয়স প্রমাণের উপযুক্ত কোনো সনদ দেখাতে পারেনি। পরে তাঁরা ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে স্বীকার করেন যে মেয়ের বয়স ১৮ হয়নি। এসময় বরপক্ষ ও কনেপক্ষকে ৪ হাজার টাকা করে ৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। উপস্থিত মুরুব্বিদের উপস্থিতিতে জরিমানা আদায় শেষে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত যেন ওই ছাত্রীর বিয়ে না দেয়া হয় সেজন্য সবাইকে শপথ করানো হয়।’






মন্তব্য চালু নেই