মেইন ম্যেনু

ফেসবুকে মেসেজ পাঠাতে গিয়ে ভুলেও এই ৩টি ভুল করবেন না, না হলে কিন্তু চরম বিপম…

সামাজিক কথোপকথনের মতোই এই ডিজিটাল আলাপেও কি মেনে চলা উচিৎ বিশেষ কোনও সভ্যতা বা ভদ্রতা, অর্থাৎ ইংরেজিতে যাকে বলে ‘এটিকেট’?

মেসেজ পাঠনোর জন্য এই যুগে হোয়াটস অ্যাপ বা ফেসবুক মেসেঞ্জার অত্যন্ত জনপ্রিয়। শুভেচ্ছা বার্তা হোক, বা সাধারণ কথোপথন— হোয়াটস অ্যাপ আর মেসেঞ্জার ব্যবহৃত হয় সবক্ষেত্রেই। কিন্তু সামাজিক কথোপকথনের মতোই এই ডিজিটাল আলাপেও কি মেনে চলা উচিৎ বিশেষ কোনও সভ্যতা বা ভদ্রতা, অর্থাৎ ইংরেজিতে যাকে বলে ‘এটিকেট’? পিটসবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিউনিকেশন লাইব্রেরিয়ান লরেন কলিস্টার বলছেন অবশ্যই রয়েছে।

নিজের ‘দি কনভার্সেশন’ বইতে হোয়াটস অ্যাপ বা মেসেঞ্জারে মেসেজ পাঠানোর কিছু রীতিনীতি মেনে চলার কথা বলছেন কলিস্টার। তাঁর মতে তিনটি নীতি মেনে চলতে হবে এক্ষেত্রে। যেমন,

• অকারণে প্যারাগ্রাফ পাঠাবেন না মেসেজে। কথার মাঝখানে হঠাৎ প্যারাগ্রাফ ভাঙলে তা কথার ধারাবাহিকতা নষ্ট করে।

• ইমোজি পাঠাতে হলে তা টেক্সটের সঙ্গে একই লাইনে জুড়ে দেবেন না। তাকে ব্যবহার করুন আলাদা লাইনে। নতুবা কথার গুরুত্ব হ্রাস পায়।

• কখনও মেসেজের শেষে ফু‌লস্টপ ব্যবহার করবেন না। এরকমটা করলে যিনি মেসেজ পাচ্ছেন তাঁর মনে হবে, আপনি কথা শেষ করে দিতে চাইছেন।






মন্তব্য চালু নেই