মেইন ম্যেনু

বইমেলার মুক্তমঞ্চে মঞ্চস্থ হলো অবয়ব নাট্যদলের নাটক “ফেরিওয়ালা”

চাড়াল জাতের দরিদ্র তরুণ লকাই ছুটতে ছুটতে এসে অশক্ত বাবা নীলকণ্ঠিকে খবর দেয়-শহর থেকে এক সাহেব এসেছে তাদের দুঃখ-কষ্ট কিনতে। কাজেই বাপ-ব্যাটা মিলে তাদের যাবতীয় দুঃখ-কষ্ট একটা কলসীতে ভরে বিক্রি করতে যায়। স্থানীয় মেম্বার এসে বলে এসব মামুলী দুঃখ-কষ্ট সম্বন্ধে ক্রেতারা আগ্রহী নয়, তারা চায় ভিন্ন রকম কোন দুঃখ-কষ্ট। লকাই আর নীলকণ্ঠি হিসাব করে দেখে বহু আন্দোলন সংগ্রামের প্রতীক প্রাচীন একটা ত্রিশূল আছে তাদের ঘরে। মেম্বার তার আর্থিক লাভের আশায় ঐ ত্রিশূল বিক্রি করতে তাদের উৎসাহ দেয়।

লকাই রাজি হলেও বেঁকে বসে নীলকণ্ঠি। সে এই পারিবারিক ঐতিহ্য রক্ষা করতে চায়। পুত্রের সাথে বিরোধ হয় পিতার। এক পর্যায়ে ঐ ত্রিশূলে আত্মহত্যা করে নীলকণ্ঠি। মেম্বার লকাইকে পরামর্শ দেয় লাশের বুক কেটে ত্রিশূলের ফলা বের করে দ্রুত বিক্রির। ততক্ষণে বোধোদয় হয় লকাইয়ের, এবার সে বেঁকে বসে। লোলুপ মেম্বার লকাইকে হত্যা করে হস্তগত করে ঐকিহ্যবাহী ত্রিশূলটি।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বইমেলার মুক্তমঞ্চে মাসব্যাপী নাট্যোৎসবে সন্ধ্যা ৬ টায় অবয়ব নাট্যদলের নাটক “ফেরিওয়ালা” নাটকটি মঞ্চস্থ হয়। নাটকটি রচনা করেন আসাদুজ্জামান দুলাল, নির্দেশনা ছিলেন শহিদুল হক খাঁন শ্যানন আয়োজনেঃ বাংলা একাডেমি। সহযোগিতায়ঃ বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশান। নাটকটিতে অভিনয়ই করেছেন কাজী দেলোয়ার হেমন্ত, (লকাই) মাহমুদ হাসান জনি, ( মেম্বার ) ফেরাঙ্ক সরকার, ( নীলকণ্ঠি ) আবু সাঈদ , সুমন, হান্নান শোভা , মাহাবুব, অপুর , আকাশ মঞ্চসজ্জা : রবীন্দ্রনাথ প্রামাণ্য , আবহ সংগীত : আলমগীর আবু হাসান , নাদিম ও জীবন , আলো : অনীক রহমান, ব্যবস্থাপনা : মাহমুদ হাসান জনি প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই