মেইন ম্যেনু

বই উৎসবে মেতেছে শিক্ষার্থীরা

নববর্ষের প্রথম দিনেই ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়া হলো নতুন বই। আর এই বই পেয়ে উল্লাসিত শিক্ষার্থীরা। বই পাওয়ার পর নেচে গেয়ে উল্লাস প্রকাশ করছেন শিক্ষার্থীরা।

শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটি থাকলেও বছরের প্রথম দিনেই শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। সেজন্য দেশের সব স্কুল আজ খোলা রাখার নির্দেশ দেয়া হয়।

সারাদেশে প্রাথমিক, ইবতেদায়ী, দাখিল ও ভোকেশনাল, মাধ্যমিক (ষষ্ঠ-নবম), এসএসসি ভোকেশনাল শ্রেণির সকল শিক্ষার্থীর হাতে নতুন বই তুলে দেওয়া হচ্ছে।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর গভ. ল্যাবরেটরি স্কুল মাঠে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ নিজে উপস্থিত থেকে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই দিয়ে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন।দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী তাসনিম বিনতে রাশেদের হাতে প্রথম বইটি তুলে দেন মন্ত্রী।

শিক্ষার্থীদের কারও হাতে শোভা পাচ্ছিল নতুন বই, কারও হাতে বেলুন, কারও হাতে জরির ফিতা। বই পেয়েছে—এমন কয়েকজন শিক্ষার্থী বলে, তাদের খুব ভালো লাগছে।এছাড়া দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ঘটা করে বই উৎসবের আয়োজন করা হয়। স্কুল মাঠে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা অংশ নেন।

গভ. ল্যাবরেটরি স্কুল মাঠে দেয়া বক্তৃতায় শিক্ষামন্ত্রী বলেন, অর্থনৈতিকভাবে দরিদ্র হলেও আমাদের সন্তানরা শিক্ষার দিক থেকে মোটেও দরিদ্র নয়। বর্তমান সরকার নতুন প্রজন্মকে বিশ্বমানের শিক্ষা দিতে কাজ করছে। শিক্ষায় মেয়েরা অনেক এগিয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ২০১০ সালে যখন বিনামূল্যে এই বই দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হয় তখন শিক্ষার্থী ছিল আড়াই কোটির মতো। আর এখন শিক্ষার্থী বেড়ে হয়েছে চার কোটি ৪৪ লাখ ১৬ হাজার। বইয়ের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৩ কোটি ৩৭ লাখ ৬২ হাজার ৭৭২ কপি। তিনি বলেন, সাফল্য ও ব্যর্থতা নিয়েই শিক্ষা কার্যক্রম আছে। তবে শিক্ষাক্ষেত্রে গত সাত বছরে যুগান্তকারী সাফল্য এসেছে। বিশেষ করে সংখ্যাগত দিক থেকে সাফল্য যুগান্তকারী।

এদিকে বই বিতরণকে কেন্দ্র করে সকাল থেকে সারাদেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। নতুন বই নিতে সকালেই স্কুলে আসে শিক্ষার্থীরা।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কয়েকজন শিক্ষার্থীর হাতে নতুন বই তুলে দিয়ে এই কর্মসূচি উদ্বোধন করেন। এরপর আজ প্রথম থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত সারা দেশে সব স্তরের শিক্ষার্থীর হাতে পৌঁছে দেয়া হচ্ছে নতুন বই।

এ বছর বছর ৪ কোটি ৪৪ লাখ ১৬ হাজার ৭২৮ শিক্ষার্থীর হাতে মোট ৩৩ কোটি ৩৬ লাখ ৬৩ হাজার ৭৬০টি বই বিতরণ করা হচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই