মেইন ম্যেনু

বউকে হারিয়ে দিশেহারা স্বামী!

মৌলভীবাজার: চলার পথে মানুষ কত কিছুই না হারায়। মোবাইন ফোন, কলম, ছাতা এসব হারানো মানুষের নিত্যদিনের ব্যাপার। তাই বলে বউ হারানো?

হ্যাঁ, এরকমই ঘটনা ঘটেছে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায়। প্রেম করে বিয়ে করার পর ভালোবাসার সেই মানুষটিকে হরিয়ে দিশেহারা স্বামী। বউকে ফিরে পেতে সহায়তা চেয়েছেন পুলিশের।

সূত্রমতে, কুলাউড়ার শরিফপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা আমির খাঁনের ছেলে কামাল খাঁন ২০১০ সালে প্রেম করে বিয়ে করেন পার্শ্ববর্তী কমলগঞ্জ উপজেলার লাঙ্গুরপুল গ্রামের শামছুল ইসলামের মেয়ে ফারজানা আক্তার শিরিনকে। কিন্তু তাদের বিয়েতে মত ছিলো না ফারজানার পরিবারের। এ নিয়ে ফারজানার মা রাবেয়া আক্তার কামালের বিরুদ্ধে মামলা করেন। বর্তমানে মামলাটি নারী শিশু আদালতে বিচারাধীন আছে।

এদিকে, বিয়ের পর থেকে সুখেই চলছিল কামাল-ফারজানার সংসার। এরই মধ্যে তাদের ঘরে আসে এক কন্যা সন্তান। জুই খাঁন নামে ওই মেয়ের বয়স এখন ৪ বছর। কিন্তু গত ১৪ মার্চ ডাক্তার দেখানোর কথা বলে মেয়ে জুইকে নিয়ে স্থানীয় শমসেরনগর বাজারে যান ফারাজানা খানম শিরিন। এরপর থেকে নিখোঁজ রয়েছেন ফারজানা। ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনটিও বন্ধ।

স্ত্রী ফারজানাকে হারিয়ে পাগলপ্রায় স্বামী কামাল খাঁন। স্ত্রীর সন্ধানের জন্য ১৬ মার্চ রাতে কুলাউড়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন কামাল খাঁন।

কুলাউড়া থানার পরিদর্শক (ওসি, তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, গৃহবধূকে খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। এজন্য সারাদেশে বার্তাও পাঠানো হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই