মেইন ম্যেনু

বগুড়ার শেরপুরে রামদা’র কোপে হাতের কব্জি কর্তন থানায় মামলা

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে জমি ক্রয়ে বায়নার কথা বলে বাড়িতে ডেকে নিয়ে গিয়ে রাম দা’র কোপে আজাদের ডান হাতের কব্জি কেটে ফেলেছে প্রতিপক্ষ বাচ্চু মিয়া। গত শনিবার সকালে বগুড়ার শেরপুরের বাগড়া বস্তিপাড়া এলাকায় ঘটেছে। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে আহতের ভাই বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে।

মামলা সূত্রে ¬জানা যায়, উপজেলার কুসুম্বী ইউনিয়নের গোসাইবাড়ী কলোনী গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে আজাদের সাথে বাগড়া বস্তিপাড়ার মৃত উজ্জল হোসেনের ছেলে বাচ্চু শেখ দীর্ঘদিন ধরে জমি কেনাবেচার ব্যবসা করে আসছিল।

এরই এক পর্যায়ে গত ৬ জুন সকালে বাচ্চু শেখ মোবাইল ফোন করে আজাদকে ৫০ হাজার টাকা নিয়ে জমি বায়না করার কথা বলে নিজ বাড়িতে (বাগড়া বস্তিপাড়া) ডেকে নিয়ে যায়। আজাদ তার কথা মতো উপস্থিত হলে পূর্বকৌশল অনুযায়ী কথা কাটাকাটি ও মারপিটের এক পর্যায়ে বাচ্চু শেখ রাম দাঁ দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে কোপ মারলে আজাদ মাথা সরালে তার ডান হাতের কনুই কেটে পড়ে গেলে চিৎকার দিয়ে অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটে পড়ে যায়।

এসময় ঘটনাস্থলে প্রতিবেশী ছানোয়ার, ইসমাইল, ইব্রাহিম, বাদশামিয়া এগিয়ে গিয়ে রক্তাক্ত আজাদকে উদ্ধার করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় আজাদকে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরবর্তীতে উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে আহতের ভাই জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে গত রবিবার রাতে শেরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয়ে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আলী আহমেদ হাশমী বলেন, ঘটনার প্রেক্ষিতে মামলা গ্রহন করা হয়েছে, আসামীকে গ্রেফতারে প্রয়োজনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।






মন্তব্য চালু নেই