মেইন ম্যেনু

বগুড়া শেরপুরে ভিজিএফ কার্ডের চাউল কম দেয়ার অভিযোগ উঠেছে

বগুড়ার শেরপুরের মির্জাপুর ইউনিয়ন পরিষদে গত বৃহস্পতিবার ঈদ উপলক্ষে গরীব দুঃস্থদের মাঝে ট্যাক অফিসারদের ম্যানেজ করে ভিজিএফ কার্ডের চাউল কম দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, সরকার সারা দেশের ন্যায় বগুড়ার শেরপুরেও গরীব দুঃস্থদের মাঝে ঈদ উপলক্ষে ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে চাউল বরাদ্দ দেয়। মির্জাপুর ইউনিয়ন পরিষদ গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ১১৮৭ জন গরীব দুঃস্থদের মাঝে প্রতি কার্ডের বিপরীতে ১০ কেজি করে চাউল দেয়ার কথা থাকলেও ওই ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপজেলা কৃষি উপ-সহকারি কৃষি অফিসার, মির্জাপুর ব্লক (এসও) শাহাদৎ হোসেন ও প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের উপ-সহকারী প্রকৌশলী কাওছার আহমেদকে ম্যানেজ করে ইউনিয়ন পরিষদের বিরুদ্ধে ৫/৬ কেজি করে চাউল কম দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

ওই ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের মকবুল হোসেন, আয়রার নিমাই, কাশিয়াবালার শাহজাহান, জাইদুল, মির্জাপুরের মোয়জ্জেম, মনোয়ারা বেগম, তালতার বেদানা খাতুন বলেনÑ আমরা অসহায় গরীব মানুষ, সরকারের এই চাউল নিয়ে আমরা ক্ষুধা নিবারন করি। কিন্তু দশ কেজি চাউল বরাদ্ধ থাকলেও আমাদেরকে দেয়া হয়েছে মাত্র ৫/৬ কেজি চাউল। ভিজিএফ এর চাউল ক্রেতা ঈমান আলী ও ফজলুল হক জানান অধিকাংশ বিক্রেতাদের চাউল ওজন করে পাওয়া গেছে ৫ থেকে ৬ কেজি। যার ফলে প্রতিজনকে একশত করে টাকা দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে ট্যাক অফিসার শাহাদৎ হোসেন বলেন, আমার সামনে কোন দুর্নীতি করা হয়নি তবে আমার অনুপস্থিতিতে কি হয়েছে তা আমি জানি না। এ বিষয়ে মির্জাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল মোনায়েম জানান, ভিজিএফের চাউল কাউকে কম দেয়া হয়নি।






মন্তব্য চালু নেই