মেইন ম্যেনু

‘বঙ্গবন্ধুর এদেশে জন্ম নেয়া আল্লাহর রহমত’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম এদেশের জন্য আল্লাহর রহমত। তাঁর মাধ্যমেই এদেশের মানুষ একটি স্বাধীন ভূখণ্ড পেয়েছে। তিনি আজীবন মানুষের জন্য লড়াই-সংগ্রাম করে গেছেন।

আজ শুক্রবার বিকালে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এই আলোচনা সভার আয়োজন করে আওয়ামী লীগ।

শেখ হাসিনা বলেন, এদেশে শোষিত মানুষকে বাঁচাতে বঙ্গবন্ধু তাঁর জীবনের হাসি-আনন্দ ত্যাগ করেছেন। তিনি এসবের বিনিময়ে জাতিকে একত্র করেছিলেন। তিনি সবসময় দেশের মঙ্গল চাইতেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাঙালি ক্ষমতায় থাকুক সেটা পাকিস্তান কখনো চায়নি। চেয়েছিল কিছু পদলেহি, যারা তাদের চাটুকারিতা করবে।

তিনি বলেন, ছয় দফার আন্দোলন ছিল স্বাধীনতার মূল মন্ত্র। এটি ছিল স্পষ্টত। তাই পাকিস্তানিরা চেয়েছিল যেভাবেই হোক তাঁকে আটকাতে। এজন্য বঙ্গবন্ধুকে আগরতলা ষড়যন্ত্রে ফাঁসানো হয়েছিল। কিন্তু এদেশের মানুষ এরপরও বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ ছিল।

শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়েছিল। তাদের কোনো যোগ্যতা ছিল না। তাদের একমাত্র যোগ্যতা ছিল তারা এদেশের জাতির পিতাকে হত্যা করেছিল।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জিয়াউর রহমানের স্ত্রী ৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারির ভোটারবিহীন নির্বাচনে বিরোধী দলীয় নেতা বানিয়েছিল বঙ্গবন্ধুর খুনি কর্নেল ফারুক রশিদকে। জিয়া ও বিএনপি সবসময় বঙ্গবন্ধুর খুনিদের নানাভাবে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে আসছে।






মন্তব্য চালু নেই