মেইন ম্যেনু

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল দেশের মানুষের স্বাধীনতা দিয়ে স্বয়ং সম্পূর্ণ দেশ গড়া

১৫ আগস্ট প্রবাসি কল্যাণ ও কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল এই দেশের মানুষের স্বাধীনতা দিয়ে একটি স্বয়ং স¤পূর্ণ দেশে পরিনত করা। আর সেই লক্ষ্যেই বর্তমান শেখ হাসিনার সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আওয়ামীলীগ একটি এমন দল যে দল এ দেশকে টিকিয়ে রাখতে পারবে।

কিন্তু একটি মহল এটিকে কোন ভাবেই সহ্য করতে পারছে না যার কারনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গ্রেনেড হামলাসহ নানা হত্যা করতে ছেয়েছিল। কিন্তু আল্লাহর রহমতে ও জনগণের দোয়াই তিনি বেছে আছেন। একটি মহলের সেই ষড়ন্ত্র কোন দিন বাংলার মানুষ বাস্তবায়ন হতে দেবে না। বরং আজ তারা আস্তাকুরে নিক্ষিপ্ত হচ্ছে।

রাউজান উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে গত ১৫ আগস্ট শোকদিবস উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। এছাড়াও তিনি বলেন, রাউজান যেভাবে সুন্দর দেখছি, তা দেশের কোথাও আছে বলে আমার মনে হয় না। এটি যেভাবে পরিকল্পিতভাবে করা হয়েছে। তা আমি অন্য উপজেলায় করার জন্য সকলকে বলব। মফস্বল থেকে এভাবে এগিয়ে যেতে পারলেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন স্বনির্বর বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠাত হবে।

তিনি আরো বলেন, স্থানীয় সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীর পরামর্শে আমি চট্টগ্রাম থেকেই প্রবাসিদের জন্য নানা সুযোগ সুবিধা চালু করতেছি। এতে রাউজানবাসিই অগ্রাধিকার পাবে। রাউজানকে যেভাবে আমি দেখেছি তা আমার জীবনে স্বরনীয় হয়ে তাকবে। একটি উপজেলা এত সুন্দর যা দেখে আমি এত বেশিই অনুপ্রানিত হয়েছি যা অন্যকেউ এখানে না আসলে বুঝতে পারবে না। তাই আমি মনে করি জনাব ফজলে করিম সাহেব যতদিন এখানে থাকবে ততদিন বার নির্বাচিত হবে। এতে প্রধান আলোচক রেলপথ মন্ত্রনালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে স্বপ্ন দেখেছিল একটি জাতিকে মুক্তি করতে।

আজ সেই বাংলার স্থপতিকে আমরা গভিরভাবে শ্রদ্ধা জানায়। বঙ্গবন্ধকে হত্যা করে দেশকে যারা পাকিস্থান বানাতে ছেয়েছিল তারা দেশ নিয়ে ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু যে দোসরা এই মহানায়ককে হত্যার মাধ্যমে এই দেশকে পাকিস্তান বানাতে ছেয়েছিল। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন হয়নি। হতেও দেবে না বাংলার জনগন। যারা পাকিস্তানের স্বপ্ন দেখে তারা কখনো এই দেশকে মেনে নিতে পারবে না। তাদের জায়গাও এই দেশের মাটিতে হবে না।

রাউজান উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম স¤পাদক বশির উদ্দিন খান এবং রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজের পরিচালনায় বক্তব্য রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহছানুল হায়দর চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কুলপ্রদীপ চাকমা, উত্তর জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী দিলুয়ারা ইউসুফ, সচিব মহসীন চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ।

এসময় রাউজান পৌর আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কাজী মো.ইকবাল, সাধারণ স¤পাদক নুরুল ইসলাম চৌধুরী শাহাজান, চেয়ারম্যান কাজী দিদারুল আলম, লায়ন সাহাবুদ্দিন আরিফ, আব্বাস উদ্দিন আহমেদ, ভূপেষ বড়–য়া, মোজাহিদ উদ্দিন চৌধুরী লিংকন, দিদারুল আলম, সুকুমার বড়–য়া। নিয়াজ মোরশেদসহ স্থানীয় দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই