মেইন ম্যেনু

বছরে বেতন ৫০০ কোটি, তবুও চাকরি ছাড়লেন

অনেকেই চাকরি খুঁজে পাচ্ছেন না। আবার যারা চাকরি পাচ্ছেন, তারা কম বেতনসহ নানা ধরণের সমস্যা মোকাবিলা করতে হয়। এমন অবস্থার মধ্যেও বছরে যদি কারো বেতন হয় ৫০০ কোটি টাকা, তা হলে কি আর কেউ চাকরি ছাড়েন! কিন্তু সেই চাকরিও পছন্দ হয়নি! এমনও ঘটনা একটি নয়, একাধিক রয়েছে।

১. আছে সফটব্যাঙ্কের প্রেসিডেন্ট তথা কোম্পানির সিওও নিকেশ অরোরা তাঁর পদ থেকে ইস্তফা দিলেন। যদিও তিনি কোম্পানির কনসালট্যান্ট হিসেবে কাজ চালিয়ে যাবেন। ৪৮ বছরের নিকেশের জন্ম ভারতে। ২২ জুন নিকেশের ইস্তফাপত্র গৃহীত হয়েছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে সফটব্যাঙ্ক।

বিশ্বের অন্যতম হায়েস্ট পেড চাকুরে নিকেশ। তাঁর বার্ষিক বেতন ভারতীয় মুদ্রায় ৫০০ কোটি টাকা। তাঁর বিরুদ্ধে আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছিল। কিন্তু সেই অভিযোগ ধোপে টেকেনি। গত সোমবার অভিযোগ থেকে নিকেশকে অব্যাহতি দিয়েছে ব্যাঙ্ক।

জানা গেছে, কোম্পানির সিইও হতে চেয়েছিলেন নিকেশ। কিন্তু বর্তমান সিইও মাসাসোশি সুন তাঁর পদ ছাড়তে রাজি হননি। জয়েনিং বোনাস ধরলে নিকেশ বছরে ৮৫০ কোটি চাকা বেতন পেতেন। সফটব্যাঙ্ক ভারতের বিভিন্ন কোম্পানিতে প্রচুর অর্থ লগ্নি করেছে। স্ন্যাপডিলে তাদের লগ্নির পরিমাণ ৬২.৭ কোটি ডলার। ওলা ক্যাবসে লগ্নি ২১ কোটি ডলার। হাউজিংডটকম, ওয়ো রুমস এবং গ্রোফার্সেও লগ্নি করেছে সফট ব্যাঙ্ক।






মন্তব্য চালু নেই