মেইন ম্যেনু

বন্দুকযুদ্ধে নিহতরা কি মানুষ না- প্রশ্ন এরশাদের

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘এক সময় শুনেছি ক্রসফায়ার, এখন শুনি বন্দুকযুদ্ধ। এগুলো কীসের আলামত। ক্রসফায়ার বা বন্দুকযুদ্ধ যাই হোক, এসব ঘটনায় যারা নিহত হচ্ছে তারা কি মানুষ না? তাদের কি আত্মপক্ষ সমর্থনের অধিকার নেই?’

শনিবার (১৮ জুন) রাজধানীর শ্যামপুর বালুর মাঠে শ্যামপুর-কদমতলী জাতীয় পার্টির উদ্যোগে আয়োজিত ইফতার মাহফিল ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাপা চেয়ারম্যান এসব কথা বলেন।

এরশাদ বলেন, ‘পাশ্ববর্তী দেশ ভারত আজ আমাদের দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্ধেগ প্রকাশ করছে। এটা আমাদের জন্য লজ্জার। দেশে এত রক্তপাত, এর জন্য পরিবর্তন দরকার। সাধারণ মানুষও আজ পরিবর্তন চায়।’

তিনি বলেন, ‘সাঁড়াশি অভিযান হয়েছে। কোনো সন্ত্রাসী ধরা পড়ে নাই। রমজান মাসে সাঁড়াশি অভিযানের নামে নিরীহ জনগণকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে।’ তবে এরশাদ তার বক্তব্যে সম্প্রতি মাদারীপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ফাহিমের নাম উল্লেখ করেননি।

ইফতার মাহফিলে বিশেষ অতিথি জাপার সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় নেত্রী রওশন এরশাদ বলেন, ‘দেশের মানুষ আজ ঘরে-বাইরে কোথাও নিরাপদ নয়। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা দেয়ার দায়িত্ব সরকারের। এ ক্ষেত্রে ব্যর্থতার পরিচয় দিলে মানুষের ভিতর ক্ষোভ বাড়বে।’

ঢাকা-৪ আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলার সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন- কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, দলের মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, মহানগর জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদত সুজন দে, সুনীল শুভ রায়, নুরুল ইসলাম নুরু, শ্যামপুর থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন, ৫১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান হাবু, ৫৩ নং ওয়ার্ড হাজী নুর হোসেন, ৫৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী মাসুদ, কাউন্সিলর হেলেনা আক্তার, খালেদা আলম ও নাজমা বেগম প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই