মেইন ম্যেনু

বন্ধ করে দেয়া হয়েছে ঢাকা-কলকাতার ‘মৈত্রী এক্সপ্রেস’

গুলশান হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ঢাকা ও কলকাতার মধ্যে সরাসরি ট্রেন ‘মৈত্রী এক্সপ্রেস’ সাময়িকভাবে বন্ধ করে দিয়েছে ভারত সরকার। কারণ ‘মৈত্রী এক্সপ্রেস’ জঙ্গিদের সম্ভাব্য টার্গেট হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আর সে কারণেই সাময়িক সময়ের জন্য ট্রেনটি বন্ধ রাখা হয়েছে। এমনটাই জানানো হয়েছে বিবিসির এক প্রতিবেদনে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে দিল্লিতে ভারতীয় রেল অধিদপ্তরের একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি এও জানিছেন, বাংলাদেশ সরকারের সাথে পরামর্শ করে মৈত্রী এক্সপ্রেস বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে এটি সতর্কতামূলক ব্যবস্থা এবং সাময়িক।

অনিল সাক্সেনা নামে ভারতীয় রেল অধিদপ্তরের একজন মুখপাত্র শুধু বলেন, ‘ঈদের সময় মৈত্রী এক্সপ্রেস বন্ধ রাখা হচ্ছে।’ যদিও গত আট বছরে একবারও ঈদের সময় এই ট্রেনটি বন্ধ রাখা হয়নি।

এদিকে গত শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গে হিন্দু জাতীয়তাবাদী দল বিজেপির কয়েকশ নেতাকর্মী ‘মৈত্রী এক্সপ্রেস’ বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ করে। অবশ্য বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপর ‘নির্যাতন ও হত্যার’ প্রতিবাদে বিজেপি এ দাবি জানায়।

২০০৮ সালের ১৪ এপ্রিল ঢাকা ও কলকাতার মধ্যে এই পেসেঞ্জার ট্রেন চালু হয়। তখন থেকে সপ্তাহে দুইদিন ঢাকা ও কলকাতা থেকে ট্রেনটি চলাচল করছে।






মন্তব্য চালু নেই