মেইন ম্যেনু

বন্যায় ৩৬৭ স্কুলে পরীক্ষা স্থগিত

বন্যা পরিস্থিতির কারণে বগুড়ার সারিয়াকান্দি ও ধুনট উপজেলার যমুনাপাড় ও চরাঞ্চলের সাড়ে তিন শতাধিক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় সাময়িক পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। বন্যার পানি নেমে গেলে এসব বিদ্যালয়ে আবার পরীক্ষা নেয়া হবে।

বগুড়ার সারিয়াকান্দি ও ধুনট উপজেলা শিক্ষা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বন্যাকালীন এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সব ধরনের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

ধুনট উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কামরুল হাসান জানান, ৩ আগস্ট বুধবার সকাল ১০টা থেকে উপজেলার ২০৩টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একযোগে দ্বিতীয় সাময়িক পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও উপজেলা শিক্ষা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরীক্ষা স্থগিত রাখা হয়েছে।

অপরদিকে সারিয়াকান্দি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা রফিকুল আলম জানান, বন্যার কারণে উপজেলার ১৬৪টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

বন্যায় যমুনা নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় সারিয়াকান্দি ও ধুনট উপজেলায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের পূর্ব পাশের প্রায় দেড় লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

শতাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পানি ঢুকে পড়ায় পাঠদান বন্ধ রাখা হয়েছে। এই দুই উপজেলায় দুই শতাধিক স্কুলে বন্যার কারণে পাঠদানে সমস্যা হচ্ছে।

বন্যাকবলিত এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে এখন শুধু পানি আর পানি। বন্যার পানিতে বিদ্যালয়ের আসবাবপত্র, চেয়ার, বেঞ্চ তলিয়ে যাওয়ায় অভিভাবকরা তাদের সন্তানদের বিদ্যালয়ে পাঠাতে চান না। কোমলমতি শিক্ষাথীদের বিদ্যালয়ে যাওয়ার আগ্রহ নেই।






মন্তব্য চালু নেই