মেইন ম্যেনু

বরিশালে ব্যাপক উৎসাহে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন

কল্যাণ কুমার চন্দ, বরিশাল: ১৮ বছর পূর্ণ হওয়ার আগেই আমরা ভোট দিতে পেরে খুবই আনন্দ পেয়েছি। সুষ্ঠু গণতন্ত্রের চর্চার মাধ্যমে নেতৃত্বের বিকাশ কিভাবে ঘটে তা আমরা এখন থেকে বুঝতে পেরেছি। বর্তমান সরকারের ইতিবাচক এ পদক্ষেপকে আমরা নতুন প্রজন্মের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই।

কথাগুলো বলছিলো, স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচনের প্রতিদ্বন্ধিতাকারী প্রার্থী দশম শ্রেনীর ছাত্র শরীফ মোঃ জাহিদ, সুমাইয়া আক্তার, নির্বাচর কমিশনার নবম শ্রেনীর ছাত্রী ইশরাত জাহান ঈশিতা ও প্রিসাইডিং অফিসার দশম শ্রেনীর ছাত্রী জেসিকা আহম্মেদ জুঁই। এরা সবাই জেলার গৌরনদী উপজেলার গেরাকুল বেগম আখতারুন্নেছা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রথমধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের জন্য মাধ্যমিক স্কুল ও মাদ্রাসাগুলোর স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছিলো। স্থগিত হওয়া ৮১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে উৎসব মুখর পরিবেশে চলে ভোটগ্রহণ। নির্বাচনের প্রার্থীরা হাতের লেখা পোস্টার দিয়ে পুরো স্কুল চত্বরকে সাজিয়ে তোলে। জাতীয়, স্থানীয় অন্যসব নির্বাচনের চেয়ে আয়োজনের কোন অংশেই কমতি ছিলোনা এ নির্বাচনে।

শিক্ষার্থীরা ভোট প্রয়োগের মাধ্যমে প্রত্যেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাতজন প্রতিনিধি নির্বাচিত করে। পরবর্তীতে নির্বাচিত সাতজন প্রতিনিধি একজনকে স্টুডেন্ট কেবিনেটের প্রধান হিসেবে নির্বাচিত করবে।
ভোটগ্রহণের দিন সরজমিনে গেরাকুল বেগম আখতারুন্নেছা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে দেখা গেছে, অত্যন্ত সুন্দর পরিবেশে ৫টি ভোট কক্ষে শিক্ষার্থীরা লাইনে দাঁড়িয়ে তাদের জীবনের প্রথম ভোটধিকার প্রয়োগ করছে।

এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীরাই প্রধান নির্বাচন কমিশনার, প্রিজাইডিং অফিসার ও পোলিং এজেন্টের দায়িত্ব পালন করে চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করে। সূত্রমতে, গৌরনদী উপজেলার ৫টি মাধ্যমিক ও ৫টি দাখিল মাদ্রাসা, উজিরপুরের ৪৮টি মাধ্যমিক ও ২৩টি দাখিল মাদ্রাসায় স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গেরাকুল বেগম আখতারুন্নেছা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মুজিবুর রহমান তালুকদার বলেন, স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা পরিলক্ষিত হয়েছে।

এই নির্বাচনে তার স্কুলের ১১ জন শিক্ষার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করেছে। উল্লেখ্য, জেলার দশটি উপজেলার কতোটি স্কুল ও মাদ্রাসায় স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস থেকে সে সম্পর্কে সঠিক কোন তথ্য দিতে পারেনি।






মন্তব্য চালু নেই