মেইন ম্যেনু

বলতে পারেন, শিশুদের মস্তিষ্ক কার কথায় বেশি কাজ করে?

শিশুদের মস্তিষ্কের সচলতা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই গবেষণা চলছে। বিশ্বজুড়ে চলা বিভিন্ন গবেষণায় চেষ্টা চলছে শিশুর মস্তিষ্কে সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলা জিনিসটাকে খুঁজে বের করার। স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির একদল গবেষকের দাবি, তারা সে উত্তর পেয়ে গিয়েছেন।

রিপিট নয়, মাত্র একবার। তাহলে যথেষ্ট। সেকেন্ডের কম সময়েও সেই আওয়াজ যদি শিশুর মস্তিষ্কে পৌঁছয় তাহলে মুহূর্তে সে প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করে। আর সেই আওয়াজ কার? জানেন কি? সেই আওয়াজ হল মা-এর। স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির একদল গবেষকের দাবি, একজন শিশু তার মা-এর আওয়াজে সবচেয়ে বেশি প্রতিক্রিয়া দেখায়। পরীক্ষায় প্রকাশ, যে কোনও শিশু তার মা-এর আওয়াজে ৯৭ শতাংশ প্রতিক্রিয়া করে।

৭ থেকে ১২ বছর বয়সী ছাত্রদের উপর এই পরীক্ষা করা হয়েছিল। এতে মা এবং অন্য মহিলাদের ভয়েস শিশুদের শোনানো হয়। সঙ্গে সঙ্গে এমআরআই করে দেখা যায় শিশুরা মা-এর আওয়াজে বেশি প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে।

স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির এই গবেষণা দলে একজন ভারতীয়ও আছেন। নাম বিনোদ মেনন। একজন শিশু কি করে মা-এর কন্ঠস্বরকে আলাদা করছে এবং শিশুর মস্তিষ্ক প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছে তা খুঁজে বের করাটা এখনো বাকি। তবে, তার মতে, এই পরীক্ষা সফল হলে জড়বুদ্ধি সম্পন্ন শিশুদের ভাষা শিক্ষা এবং বাস্তব জীবন সম্পর্কে শিক্ষা দেওয়াটা অনেক সোজা হবে।-এবেলা






মন্তব্য চালু নেই