মেইন ম্যেনু

বলিউড অভিনেত্রী থেকে যেভাবে হলেন পথের ভিখারী!

বলিউডে টিকে থাকাটাই একটা বড় চ্যালেঞ্জ। এই সত্যিটা বার বার বিভিন্ন ঘটনায় সামনে এসেছে।

বলিউডের নামী মডেল গীতাঞ্জলি নাগপালকে মনে আছে? মডেলিংয়ে টিকে থাকতে পারেননি। গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডের চোখ ধাঁধানো আলোর দুনিয়া থেকে হারিয়ে যান তিনি।

২০০৭ সালে আচমকা এক দিন তাঁকে রাস্তায় রাস্তায় উদ্দেশ্যহীন ভাবে ঘুরে বেড়াতে দেখা যায়। তখন তাঁর চোখে-মুখে, শরীরের কোথাও গ্ল্যামারের চিহ্নমাত্র ছিল না। পথের ভিখারীর সঙ্গে তাঁর কোনও পার্থক্য ছিল না তখন।

সম্প্রতি একটি ঘটনায় ২০০৭ সালের সেই স্ম়ৃতিটা আরও একবার তাজা হয়ে সামনে এল। মিতালি শর্মা নামে দিল্লির বাসিন্দা মেয়েটির বলিউডে বড় পর্দায় কাজ করার স্বপ্ন ছিল। মডেল হিসাবে বেশ নামও করেছিলেন মিতালি। কাজ করেছিলেন বেশ কয়েকটি আঞ্চলিক ভাষার ছবিতেও। এই পেশা বেছে নেওয়ায় তাঁর সঙ্গে সম্পর্ক রাখেননি বাবা-মাও।

মিতালিও গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডের কঠিন প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে পারেননি শেষ পর্যন্ত। কাজ পাচ্ছিলেন না অনেক দিন ধরেই। কিন্তু বাড়ি ফিরে যাওয়ারও উপায় নেই। তাই মুম্বইয়ের লোখান্ডওয়ালায় রাস্তায় ভিক্ষে করে পেট চালাতেন। সম্প্রতি চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়ে যান তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, গত দু দিন ধরে কিছুই খাননি মিতালি। ওশিওয়াড়ার একটি হাউজিং সোসাইটির কাছে গাড়ির কাচ ভাঙতে যাচ্ছিলেন তিনি। তখনই ধরা পড়ে যান পুলিশের হাতে।

তাঁর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছে পুলিশ। আপাতত মিতালির ঠিকানা থানের মানসিক হাসপাতাল।আনন্দবাজার






মন্তব্য চালু নেই