মেইন ম্যেনু

বলিউড তারকাদের বদলে যাওয়া রূপের রহস্য

অভিনেতা কিংবা অভিনেত্রী, অভিনয় গুণ অথবা রূপের ঝলক দিয়ে দর্শকদের হৃদয় জয় করে নেন। আর দেখতে যদি ষোড়শী দেবী দুর্গা হন, সেই সঙ্গে চোখ ধাঁধানো অভিনয়। তাহলে আর কী বলার থাকতে পারে আছে তা, শুধু সময়ের ব্যাপার মাত্র। পাঠক হ্যাঁ, তারকারা রূপের খুঁটিনাটি বিষয় থেকে শুরু করে সকল বিষয়ে নিয়ে সবসময় ভীষণ সচেতন থাকেন। আর বলিউডের কয়েকজন তারকার কালো থেকে ফর্সা হওয়ার পেছনে গল্প থাকছে এ নিবন্ধে।

রেখা

কে তার প্রেমে পড়েন নি? পাঠক বলছি রেখার রূপের কথা। সময়ের সঙ্গে বদলে গেছে রূপের ঝলক। হিন্দি ছবির সাবেক ‘হার্টথ্রব’ রেখার বয়স এখন ৬১৷এ সময়ে এসেও মাঝে মধ্যেই চোখে লাগারমত ছোট বয়সের নায়কদের সঙ্গে দারুণ অভিনয় করে মুগ্ধ করেন দর্শকদের। তবে রেখার ক্যারিয়ারের শুরুর দিকের অভিনয় কিংবা চেহারা দেখলে এখন অনেকটা অবাক নয়নেই তাকাতে হয়। কারণ তার গায়ের রং বদলে যাওয়ার রহস্য!

শ্রীদেবী

বিশ্ব দর্শকদের হৃদয়ে সাড়া জাগানো অভিনেত্রী শ্রীদেবী। তামিলনাড়ুতে জন্ম নেওয়া এ অভিনয়শিল্পীর অভিনয় গুণ বা পর্দায় চমকিত উপস্থিত বদলে দিয়েছে তার ক্যারিয়ারের প্রেক্ষাপট। এখন বয়স তার ৫২। তবে শ্রীদেবী যখন অভিনয় শুরু করেন, তখন থেকে বদলে যাওয়া রূপের রহস্য কি, এখন পর্যন্ত কাউকে বলেন নি।

কাজল

এই তো কদিন আগেই মুক্তি পেয়েছে শাহরুখ খান আর কাজল অভিনীত ‘দিলওয়ালে’ ছবিটি। সেই সঙ্গে ছবিটি বাণিজ্যিক দিক থেকেও সফল। তবে সবকিছু ছাপিয়ে কাজল ভক্তদের কাছে আলোচনায় বিষয় ছিলো ৪১ বছর বয়সী কাজলের রূপের রহস্য। কিংবা তার রূপবতী থাকার কৌসল।

বিপাশা বসু

বিপাশা বসুর ক্যারিয়ারের শুরুর দিকের ঘটনা এটি- গায়ের রং ফর্সা নয় বলে মুম্বাইয়ে গিয়ে বেশ ভালো ভোগান্তিই পোহাতে হয়েছিল। কারণ সব পরিচালকই চান নায়িকা হবেন অপরূপা সুন্দরী। কিন্তু এ নিয়ে বিপাশার মধ্যে হতাশাও কম কাজ করে নি। তখন বেশ কিছু দারুণ ছবির কাজ তার হাত থেকে ফসকে গিয়েছে। যদিও একটা সময় গিয়ে সে সমস্যা দূর হয়েছে। ‘ব্লিচ’ করে ফর্সাও হয়েছেন অনেকটা৷ এরপর থেকে সেলুলয়েডের পর্দায় বাণিজ্যিক দিক থেকে চাহিদা ক্রমাগতভাবেই বাড়ছে।

শিল্পা শেঠি

সবার ক্ষেত্রে কিন্তু সবকিছু এক হয়ে কাজ করে না। কিছু সময় প্রকৃতিও মানুষের পক্ষ নিয়ে থাকে। আবার কিছু কিছু সময় এর ব্যাতিক্রমও ঘটে থাকে। রূপের রং ফর্সা হলেই যে নায়িকা হওয়া যাবে-এ ধারনাকে তিনি ভুল প্রমাণ করেছেন। সবেচেয়ে মূল বিষয় তার অভিনয় গুণ। এরপর তার রূপের সৌন্দর্য। শিল্পা শেঠির রূপে লাবন্যময়ী কিন্তু সেই শৈশব থেকেই। আর কোটি কোটি দর্শক-ভক্ত তার রূপের এ রহস্য দেখেছে শুধু মূল ধারার ছবির উপযোগী নাচ ও অভিনয় দক্ষতার কারণেই৷এরপর ধীরে ধীরে নিজেকে বদলে ফেলেন শিল্পা। সেই সঙ্গে এসেছে তার গায়ের রঙের মোহনীয়তার পরিবর্তন।

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

তবে রূপের রহস্যের দিক থেকে বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার ক্ষেত্রে কিছুটা ভিন্ন রকম। কারণ নায়িকা হওয়ার আগেই যে তিনি মিস ওয়ার্ল্ড হয়েছিলেন। সেই সঙ্গে সৌন্দর্যের স্বীকৃতি। তবে একটি বিষয় কি-এখন প্রিয়াঙ্কা দেখতে যতটা সুন্দরী রূপ-লাবণ্যে অপ্সরা সেসময় কিন্তু তিনি তেমনটি ছিলেন না। তিনি শুধু গায়ের রং-ই নয়, সেই সঙ্গে প্লাস্টিক সার্জারি করিয়েছেন নাক এবং ঠোঁটও।






মন্তব্য চালু নেই