মেইন ম্যেনু

বলিভিয়ায় মন্ত্রীকে অপহরণের পর পিটিয়ে হত্যা

বলিভিয়ার উপস্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রডোলফো ইলানেসকে অপহরণের পর পিটিয়ে হত্যা করেছে আন্দোলনরত খনি শ্রমিকরা। খবর রয়টার্সের।

দেশটির সরকারের দুইজন মন্ত্রী আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমকে জানান, এই ঘটনার দায়ে ১০০ জনের অধিক শ্রমিককে আটক করা হয়েছে। শ্রমিকের হামলায় ১৭ জনেরও বেশি পুলিশ আহত হয়েছে।

বলিভিয়ার মন্ত্রী কার্লোস রোমিরো এক বিবৃতিতে বলেন, ‘আমরা খবর পেয়েছি আমাদের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী রডোলফো ইলানেসকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে।’

কার্লোস আরও জানান, আন্দোলনরত খনি শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলার জন্য বৃহস্পতিবার রডোলফো ইলাসেন বলিভিয়ার পানডুরোতে যান। পানডুরো মূলত খনি এলাকা। যেটি বলিভিয়ার রাজধানী সুক্রে থেকে ১৬০ কিলোমিটার দূরে। প্রতিমন্ত্রী সেখানে পৌঁছলে তাকে খনি শ্রমিকরা ঘিরে ধরে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। তবে তার লাশ এখানো পাওয়া যায়নি। সরকারের পক্ষ থেকে লাশ উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী রেইমি ফেরেইরা টেলিভিশনে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জানান, নিহত উপমন্ত্রী রডোলফো ইলানেস এ বছরের নিয়োগপ্রাপ্ত হয়েছিলেন।

রয়টার্স জানিয়েছে, রডোলফো ইলানেসকে পিটিয়ে হত্যা করার সময় তার সহকারী খনি শ্রমিকদের হাত থেকে পালিয়ে বাঁচেন। তাকে এখন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

বলিভিয়ার খনি শ্রমিকরা বিদ্যমান খনি আইন পরিবতর্নের জন্য গত সপ্তাহ থেকে বিক্ষোভ করে আসছিলেন। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ আন্দোলনকারীদের ওপর গুলি চালালে দুই জন শ্রমিক নিহত হয়। এরপর পরিস্থিতির আরো অবনতি ঘটে।






মন্তব্য চালু নেই