মেইন ম্যেনু

বহুল প্রতীক্ষিত বাংলাবান্ধায় চালু হচ্ছে ইমিগ্রেশন সুবিধা

নানা জল্পনা-কল্পনা আর প্রতীক্ষা শেষে বাণিজ্য কার্যক্রম শুরুর দেড় যুগ পর আজ বৃহস্পতিবার বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে চালু হতে যাচ্ছে ইমিগ্রেশন সুবিধা। এর মাধ্যমে পঞ্চগড়সহ উত্তরাঞ্চলের মানুষের দীর্ঘদিনের দাবী পূরণ হতে যাচ্ছে। আর এর মধ্যদিয়েই কেটে যাবে বাংলাবান্ধা দিয়ে মানুষ পারপারের সকল বাধা। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল আনুষ্ঠানিকভাবে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে ইমিগ্রেশন উদ্বোধন করবেন।

এ ইমিগ্রেশন সুবিধা চালু হলে সম্ভাবনার দুয়ার খুলবে দেশের সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধায়। সেই সঙ্গে পাল্টে যাবে হিমালয় কন্যা খ্যাত পঞ্চগড় জেলার আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপট। পঞ্চগড় পরিণত হবে শিল্প ও পর্যটন নগরীতে। চার দেশীয় (বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল ও ভুটান) ব্যবসা বাণিজ্যের অপার সম্ভাবনাময় কেন্দ্রস্থল বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে এখন চলছে ইমিগ্রেশন উদ্বোধনের নানা আনুষ্ঠানিকতার প্রস্তুতি।

পঞ্চগড়ের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিন জানান, গত রবিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ইমিগ্রেশন সুবিধা চালুর বিষয়ে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে আগামীকাল বৃহস্পতিবার বাংলাবান্ধায় ইমিগ্রেশন সুবিধা চালুর সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়। ওইদিন দুপুর ২টায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, ভারতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জেনারেল (অব.) বিজয় কুমার সিং এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রীংলার ইমিগ্রেশন কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার কথা রয়েছে। দীর্ঘদিনের প্রত্যাশিত ইমিগ্রেশন সুবিধা চালুর সিদ্ধান্তের খবরে এখন আনন্দের জোয়ার বইছে পঞ্চগড়ে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই