মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশকে সতর্ক করলেন সাবেক ক্রিকেটার

দলগত পারফরমেন্সে বাংলাদেশের আরও অনেক বেশি উন্নতি প্রয়োজন আছে বলে মনে করেন ইংল্যান্ডের ঘরোয়া লীগের সাবেক খেলোয়াড় অ্যালান উইলকিনস। ধারাভাষ্যকার হিসেবে চলমান টুয়েন্টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপ ক্রিকেটে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। বাংলাদেশ সম্পর্কে উইলকিনস বলেন, ‘দলগতভাবে আরো উন্নতি করতে হবে তাদের। তবেই অনেক বেশি সাফল্য অর্জন করবে দলটি।’

বহুবারই সামনে থেকে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের খেলা দেখেছেন উইলকিনস। তবে বাংলাদেশের সমর্থক হিসেবে নয়, ধারাভাষ্যকার হিসেবে। বিভিন্ন দেশে নিজের দায়িত্ব পালন করতে বাংলাদেশসহ বহু ক্রিকেট দেশের খেলা দেখেছেন ৬২ বছর বয়সী উইলকিনস। চলমান টি-২০ বিশ্বকাপের শুরু থেকেই ধারাভাষ্যকারের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। দায়িত্ব পালনের মাঝে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে বাংলাদেশের খেলাও দেখেছেন উইলকিনস। আর দায়িত্ব পালনের ফাঁকে বাংলাদেশ নিয়ে কথাও বলেছেন তিনি।

দলগত পারফরমেন্সে বাংলাদেশের আরও উন্নতি প্রয়োজন বলে মনে করেন উইলকিনস, ‘প্রথম ম্যাচে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে অগোছালো দেখা গেছে বাংলাদেশকে। দলগত পারফরমেন্স দেখা যায়নি। এই ক্ষেত্রে বাংলাদেশের আরো উন্নতি প্রয়োজন। বড় বড় দলের বিপক্ষে ভালো ফল পেতে হলে সবাইকে পারফরমেন্স করতে হবে। যা ছিলো না নেদারল্যান্ডের বিপক্ষে। ম্যাচ জিততে সবাইকে এক সাথে ভালো খেলতে হবে।’

নেদারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে উইলকিনস আরো বলেন, ‘ওই ম্যাচে বাংলাদেশ ভালো খেলেছে। তবে ব্যাটিং ভালো হয়নি। একমাত্র তামিমই বড় ইনিংস খেলেছেন। ব্যাটসম্যানদের আরো সচেতন হতে হবে। বড় ইনিংস খেলতে হবে। তবে বোলাররা খুবই ভালো করেছিলো। তাসকিন-মাশরাফি-আল আমিন ভালো করেছে। তাসকিনের বোলিং-এ গতি আছে। লাইন-লেন্থও ভালো। ওর আরও বেশি উন্নতি করতে হবে।’

বাংলাদেশ দলের তরুণ খেলোয়াড়দের পারফরমেন্স চোখে লেগেছে উইলকিনসের, ‘বাংলাদেশ দলে অনেক তরুণ খেলোয়াড় রয়েছে। যারা ভবিষ্যতে দলকে সামনের দিকে টেনে নিবে। এখনো তারা ভালো পারফরমেন্স করছে। তবে তারা যত বেশি পারফরমেন্স করবে দলের জন্য তা ভালো হবে।’

চলমান বিশ্বকাপে বাংলাদেশ সুপার টেনে খেলবে বলেও বিশ্বাস উইলকিনসের, ‘আমার বিশ্বাস বিশ্বকাপের সুপার টেনে খেলবে বাংলাদেশ।’

সুপার টেনে উঠলে বাংলাদেশের পারফরমেন্স কেমন হবে এমন প্রশ্নের উত্তরে উইলকিনস বলেন, ‘দলগতভাবে এবং তরুণরা প্রয়োজনের সময় পারফরমেন্স করতে পারলে বাংলাদেশ সাফল্য পাবে। সুপার টেনে বড় বড় দলের বিপক্ষে খেলতে হবে তাদের। তাই সুপার টেনে আরো সর্তক হতে হবে বাংলাদেশকে।’

ক্রিকেট ক্যারিয়ারে বড় তারকা ছিলেন না উইলকিনস। জাতীয় দলের হয়ে কোন ম্যাচই খেলতে পারেননি তিনি। তবে কাউন্টি লীগে প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে ১০৭টি ম্যাচে ৯০২ রান ও ২৪৩টি উইকেট নেন উইলকিনস। আর লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ১০৪ ম্যাচে ১৫৩ রান ও ১৩০টি উইকেট নেন তিনি। কাউন্টি লীগে গ্লুস্টারশায়ার, গ্লামারগন ও নর্দান ট্রান্সভালের হয়ে খেলেন উইলকিনস।

ক্রিকেট মাঠে বড় তারকা হতে না পারলেও, ধারাভাষ্যকার হিসেবে উজ্জল তারকা উইলকিনস। তার সুমধুর কণ্ঠস্বর জায়গা করে নিয়েছে ক্রিকেট ভক্তদের মনের গভীরে।






মন্তব্য চালু নেই