মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশের উন্নয়নে আগের মতই পাশে থাকবে জাইকা

বাংলাদেশের উন্নয়নে আগের মতই পাশে থাকবে জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন (জাইকা)। প্রতিষ্ঠানটির প্রেসিডেন্ট শিনিচি কিতাওকা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, তারা এখন তাদের কর্মকর্তাদের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেবেন।

বাংলাদেশের উন্নয়নে আগের মতোই পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে এই সহযোগী সংস্থাটি। তবে বাংলাদেশে কর্মরত জাইকার কর্মকর্তাদের নিরাপত্তার বিষয়টি সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হবে বলেও জানানো হয়। এ বছরের অক্টোবরে রংপুরে জাপানি নাগরিক কুনিও হুশি খুন হবার পর থেকে নিজেদের কর্মীদের নিরাপত্তা নিয়ে কিছুটা চিন্তিত ছিল প্রতিষ্ঠানটি।

এছাড়া সম্প্রতি বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার গুলশানে শুক্রবার রাত পৌনে ৯টায় হলি আর্টিজান রেস্টুরেন্টে হামলার ঘটনায় সাত জাপানি নিহত হওয়ার পর আশঙ্কা করা হয়েছিল জাইকা হয়তো বাংলাদেশ থেকে তাদের কার্যক্রম গুটিয়ে নেবে। কিন্তু সেই আশঙ্কাকে ভুল প্রমাণ করে জাইকা জানিয়েছে, তারা আগেও বাংলাদেশের উন্নয়নে সাহায্য করেছে আর এখনো করবে।

মঙ্গলবার নিহত সাত জাপানির মরদেহ বাংলাদেশ সময় ভোররাতে টোকিও পৌঁছেছে। একটি সরকারি বিমানে করে তাদের লাশ দেশে পৌঁছেছে।

এক বিবৃতিতে জাইকার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, বাংলাদেশের বিভিন্নস্থানে জাইকার কর্মীরা নিয়োজিত রয়েছেন। তারা বাংলাদেশের উন্নয়নের জন্য কাজ করছেন। তাদের নিরাপদ রাখার বিষয়টিকেই এখন বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই