মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশে আসছে অস্ট্রেলিয়ার একঝাঁক তরুণ ক্রিকেটার

বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের জন্য তারুণ্য নির্ভর দল ঘোষণা করেছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। মূলত, অ্যাশেজ সিরিজের পর অস্ট্রেলিয়া দলের পাঁচজন অভিজ্ঞ খেলোয়াড় প্রায় একসঙ্গে অবসর নেয়ার পর নতুনদের ওপরই ভরসা রাখতে হচ্ছে তাদের। এছাড়া ইনজুরির সমস্যা তো আছেই।

অ্যাশেজের পর অসরর নিয়েছেন মাইকেল ক্লার্ক, ক্রিস রজার্স, ব্র্যাড হ্যাডিন, শেন ওয়াটসন ও রায়ান হ্যারিস। এছাড়া ইনজুরির কারণে বাংলাদেশ সফরে আসতে পারবেন না উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার। এতে অস্ট্রেলিয়ান দুই নিয়মিত ওপেনার ক্রিস রজার্স ও ডেভিড ওয়ার্নারকে বাংলাদেশ সফরে পাচ্ছে না। দলের এই বেহাল দশায় অস্ট্রেলিয়া দলে কয়েকজন নতুন খেলোয়াড় সুযোগ পেয়েছেন। তাসমানিয়ার পেসার আন্দ্রে ফেকেট ও ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার ওপেনার ক্যামেরুন বেনক্রফট ১৫ সদস্যের দলে নতুন মুখ হিসেবে জায়গা পেয়েছেন। এছাড়া জো বার্নস, উসমান খাজা, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও স্পিনার স্টিভ ও’কেফে ফের টেস্ট দলে ফিরেছেন। অন্যদিকে অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথের সহকারী করা হয়েছে অ্যাডাম ভোজেসকে।

এছাড়া টানা ক্রিকেটের মধ্যে থাকায় দুই পেসার মিচেল জনসন ও জস হ্যাজেলউডকে বিশ্রাম দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার বোলিং আক্রমণে থাকবেন মিচেল স্টার্ক, পিটার সিডল ও প্যাট কামিন্স। বাংলাদেশর কন্ডিশনের কথা মাথায় রেথেই এমন নয়া দল গঠন করা হয়েছে বলে জানালেন অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক রডনি মার্শ।

দুই ম্যাচে টেস্ট সিরিজ খেলতে ২৮ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ সফরে আসবে স্টিভেন স্মিথের নেতৃত্বাধীন অস্ট্রেলিয়া দল।

অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দল:স্টিভেন স্মিথ (অধিনায়ক), অ্যাডাম ভোজেস (সহ-অধিনায়ক), ক্যামেরন বেনক্রফট, জো বার্নস, প্যাট্রিক কামিন্স, আন্দ্রে ফেকেটে, উসমান খাজা, নাথান লায়ন, মিচেল মার্শ, শন মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, পিটার নেভিল, স্টিফেন ও’কেফে, পিটার সিডল ও মিচেল স্টার্ক।






মন্তব্য চালু নেই