মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশে কোনো সন্ত্রাসীর ঠাঁই হবে না

বাংলাদেশে কোনো সন্ত্রাসীর ঠাঁই হবে না বলে মন্তব্য করেছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। তিনি বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রিতির বাংলাদেশে গুলশানের রেস্তোরাঁর হামলার মতো সন্ত্রাসী হামলা মানসিকভাবে আমাদের বিপর্যস্ত করেছে।

আজ সোমবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

রাজধানীর গুলশান-২ নম্বর সেক্টরে গত শুক্রবার রাত পৌনে ৯টার দিকে স্প্যানিশ রেস্তোরাঁ হলি আর্টিজান বেকারিতে সন্ত্রাসী হমলায় ২৮ জন নিহত হয়।

আজ ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন জাপান দূতাবাসের দুজন প্রতিনিধি। তাঁরা রেস্তোরাঁর ভেতর ঘুরে দেখেন। তার কিছুক্ষণ পরই হলি আর্টিজান পরিদর্শনে আসেন ইতালীয় দূতাবাসের দুজন প্রতিনিধি। তাঁরাও সেখানে বেশ কিছুক্ষণ অবস্থান করেন। জাইকার একটি প্রতিনিধিদলও পরিদর্শন করেন হলি আর্টিজান। পরিদর্শন ও শ্রদ্ধা নিবেদন করতে হলি আর্টিজানে আসেন দেশ ও বিদেশি সাধারণ মানুষও।

গুলশানের রেস্তোরাঁয় সন্ত্রাসী হামলার প্রসঙ্গে তারানা হালিম সাংবাদিকদের বলেন, ‘মুসলমান হিন্দু বৌধ খ্রিস্টান আমরা সবাইকে ভালোবাসি। সাম্প্রদায়িক সম্প্রতির এই দেশে এ ধরনের সন্ত্রাসী হামলা মানসিকভাবে আমাদের বিপর্যস্ত করেছে। তবে এটা ঠিক শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার বিশ্বাস করে বাংলাদেশে কোনো সন্ত্রাসীর ঠাঁই হবে না। সে লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দৃঢ়ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। আমরা সব বাংলাদেশি মানুষের পাশে আছি, আমরা পাশে থাকব।’






মন্তব্য চালু নেই