মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে। আজ রোববার দুপুরে সচিবালয়ে ভারতীয় হাইকমিশনের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন অর্থমন্ত্রী।

তিনি বলেন, অর্থ চুরির বিষয়টি তাঁকেসহ অন্যদের না জানিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক ধৃষ্টতা দেখিয়েছে। এ বিষয়ে ব্যাংক যেভাবে ব্যবস্থা নিয়েছে সেটা অদক্ষতার পরিচয় বহন করে। বিষয়টি নিয়ে আমি বিকেলে অথবা আগামীকাল সোমবার গণমাধ্যমে বিবৃতি দেব। তবে এর আগে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করব।

বাংলাদেশ ব্যাংক গত শুক্রবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সাইবার আক্রমণে ৩৫টি ভুয়া পরিশোধ নির্দেশের মাধ্যমে ৯৫ কোটি ১০ মার্কিন ডলার বা প্রায় ৭ হাজার ৬০৮ কোটি টাকা স্থানান্তরের প্রস্তাব পাঠানো হয়। তার মধ্যে ৩০টি নির্দেশ আটকানো সম্ভব হয়। তাতে ৮৫ কোটি ডলার বেহাত হওয়া প্রতিহত করা গেছে।

তবে পাঁচটি পরিশোধ নির্দেশের বিপরীতে ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার বা প্রায় ৮০৮ কোটি টাকা ফিলিপাইন ও শ্রীলঙ্কায় চলে যায়। তার মধ্যে শ্রীলঙ্কা থেকে ২ কোটি ডলার উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। ফিলিপাইনে যাওয়া ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার বা প্রায় সাড়ে ৬০০ কোটি টাকা উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক।






মন্তব্য চালু নেই