মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশ সফরের সম্ভাবনা দেখছেন না অসি কোচও

বাংলাদেশ সফরের উদ্দেশ্যে টেস্ট স্কোয়াডে থাকা ক্রিকেটারদের বুধবার নিজ নিজ রাজ্য দলের অনুশীলনে ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। স্টিভেন স্মিথদের বাংলাদেশ সফর বাতিলের শঙ্কা তাতে আরও বেড়েছে, তা বলাই বাহুল্য। অস্ট্রেলিয়ার কোচ ড্যারেন লেম্যানও মনে করছেন, যত সময় গড়াচ্ছে, বাংলাদেশ সফরের সম্ভাবনা ততই কমছে।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) অফিসিয়াল ওবেসাইটে ইঙ্গিত দেয়া হয়েছে বৃহস্পতিবারই অসিদের বাংলাদেশ সফরের ভাগ্য চূড়ান্ত হতে পারে। ফাইভডাবলএ রেডিওর সঙ্গে সাক্ষাতকারে অস্ট্রেলিয়ার কোচ ড্যারেন লেম্যানের কণ্ঠেও বুধবার উঠে এসেছে সময়ের বাস্তবতা। তবে এখনও যে বিষয়টি নিয়ে চূড়ান্ত কোন সিদ্ধান্ত হয়নি, সেটাও জানিয়েছেন এই অস্ট্রেলিয়ান কোচ।

অস্ট্রেলিয়া দলের বাংলাদেশ সফর প্রসঙ্গে লেহম্যান বলেন, ‘সত্যি বলতে ব্যাপারটি এখন খুব আঁটসাঁট হয়ে যাচ্ছে। দিনশেষে আমাদের অপেক্ষা করতে হবে যে বোর্ড ও নিরাপত্তা কর্মকর্তারা কী বলছেন। তবে ক্রিকেটার ও স্টাফদের নিরাপত্তায় সঠিক সিদ্ধান্তটিই আমাদের নিতে হবে। আমরা এখনও অপেক্ষা করছি। নিরাপত্তা কর্মকর্তারা বাংলাদেশ থেকে ফিরেছে। আমরা যখন কথা বলছি, তারাও বোর্ডের সঙ্গে কথা বলছে। আশা করি, পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা বা কাছাকাছি সময়ে কোনো একটা উত্তর আমরা পেয়ে যাব।’

অস্ট্রেলিয়ান কোচের ধারণা, পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সবকিছু স্পষ্ট হবে। দুটি টেস্ট খেলতে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের গত সোমবার বাংলাদেশে পৌঁছানোর কথা ছিল। কিন্তু ‘সম্ভাব্য নিরাপত্তা ঝুঁকির তথ্য পাওয়ার’ কথা জানিয়ে শনিবার হঠাৎ করেই সফর পিছিয়ে দেওয়ার ঘোষণা দেয় দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। তাদের নিরাপত্তা প্রতিনিধি দল বাংলাদেশে এসে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর সঙ্গে বৈঠকও করে।

বাংলাদেশ সফরের পর্যবেক্ষণ নিয়ে তারা গতকাল কথা বলেছেন ডিপার্টমেন্ট অব ফরেন অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড ট্রেড (ডিএফএটি), ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এবং অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে। তিন পক্ষের সঙ্গে এই বৈঠকের পর সিএর পক্ষ থেকে ক্রিকেটারদের রাজ্য দলগুলোতে ফেরত যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হলেও এখন পর্যন্ত বিসিবিকে এ বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। তবে ক্রিকেটাররা নিজ নিজ শহরে থাকায় তাদের রাজ্য দলে ফেরত পাঠানো সহজ হয়েছে বোর্ডের জন্য। সফরের সিদ্ধান্ত হলে নিজ নিজ অবস্থান থেকেই আবার জাতীয় দলে যোগ দেবেন ক্রিকেটাররা।

আর তা না হলে প্ল্যান ‘বি’তে হাঁটবেন ড্যারেন লেম্যান। এ নিয়ে ফাইভডাবলএ রেডিওতে তিনি বলেন, ‘এই তরুণ দলটি খুবই রোমাঞ্চকর। আমরা যদি সেখানে যাই এবং খেলি, তাহলে সেটি হবে দারুণ রোমাঞ্চকর। আর ওখানে না গেলে আমরা ‘প্ল্যান বি’ তে চলে যাব। তবে এ মুহূর্তে আমি বলতে পারছি না ‘প্ল্যান বি’ টা কি। ছেলেরা রাজ্য দলে ফিরেছে। আমরা ওদের রাজ্য দলের অনুশীলনে ফিরিয়েছি, ওখান থেকেই আমরা সিদ্ধান্ত নেব।’






মন্তব্য চালু নেই