মেইন ম্যেনু

আলোকিত মুস্তাফিজ ও সৌম্য

বাঘের থাবা আর গর্জনে পরাভূত ভারত ॥ উৎসব, উচ্ছ্বাস দেশময়

মোঃ বদরুজ্জামান, বিশেষ প্রতিনিধি, সাতক্ষীরা : বিশ্বকাপ ক্রিকেটে অদৃশ্য শক্তি এবং বিতর্কিত আম্পায়ারিং এর কারণে বাংলার টাইগারদের পরাজয় কেবল বাংলাদেশের কোটি কোটি জনগোষ্ঠী নয় বিশ্ব ক্রিকেট বোদ্ধারাও মেনে নিতে পারেনি। সেদিন ভারত জয় পেয়েছিল কিন্তু পরাজিত হয়েছিল ক্রিকেট সেই সাথে বাংলার টাইগাররা বঞ্চিত হয়েছিল জয়ের স্বাদ হতে। বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানী ঢাকা মিরপুর স্টেডিয়ামে প্রতিপক্ষ ভারতকে ৭৯ রানে পরাজিত করে বাংলার টাইগাররা মধুর প্রতিশোধ নিল। আলোক উজ্জ্বল আভার বিচ্ছুরণ ঘটিয়ে মিরপুর স্টেডিয়ামে মুস্তাফিজময় হয়ে উঠলো মুস্তাফিজ মুস্তাফিজ এর জয়গান, জয়স্রোত, হর্ষধ্বনি, আনন্দধ্বনি রাতের নিস্তব্ধতা ভেঙ্গে বাঁধভাঙ্গা আনন্দস্রোতের আবহ গানে উদ্বেলিত হয় সারা জাতি। বাংলার বাঘরা ভারত বধ করেছে। বিশ্বের অন্যতম ক্রিকেটীয় শক্তি, পরাশক্তি ভারত বধের অন্যতম নায়ক মুস্তাফিজ। সাতক্ষীরার এই কৃতি সন্তান ভারতকে পরাজিত করার এক অনন্য, অসাধারণ নৈপূন্যতা আর বীরত্ব দেখিয়েছে। বাংলাদেশের সোনার ছেলে মুস্তাফিজের দূর্দান্ত বোলিংয়ে বিপর্যস্থ হয় ভারতের ব্যাটিং শক্তি। অভিষেক ম্যাচেই মুস্তাফিজ একে একে পাঁচ উইকেট নিয়ে ভারতের পরাজয়কে এক ধরণের নিশ্চিত করে। মুস্তাফিজ কেবল পাঁচটি উইকেট নিয়েছে তা নয় এই কৃতি বোলার তার অসাধারণ বোলিং এ ভারতের বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যানদের নাকানি চুপানির অসহ্য যন্ত্রনায় নিক্ষেপ করে। তার বলের ধরন, গতি প্রকৃতি বিশ্বসেরা যে কোন বোলারের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ এমনটি বলছেন ক্রিকেট বোদ্ধারা। সত্যিকার অর্থে বিশ বছর বয়স পূর্ণ না হওয়া মুস্তাফিজের জয়যাত্রায় জাতি একাত্বতায় আবদ্ধ। এমন বল এমন নৈপূন্য আর বীরত্ব অনেকদিন প্রত্যক্ষ করেনি বাংলাদেশের কোটি কোটি ক্রিকেট ভক্তরা। ভারতের ক্রিকেটীয় দাম্ভিকতাকে চূর্ণ বিচূর্ণ এবং ক্ষত বিক্ষত করনে যে ছেলেটি হাতের জাদুর বিকিরণ আর বিষ্ফোরণ ঘটিয়েছে সে আমাদের মুস্তাফিজ। বৃহস্পতিবার রাতে মুস্তাফিজ যখন একের পর এক উইকেট নিধন করে ভারতের ব্যাটিং লাইন তছনছ করছিল এবং লাল সবুজের জয়স্রোত দেখা মিলছিল তখন দেশের সীমানা পেরিয়ে বিশ্ব ক্রিকেটে মুস্তাফিজের নাম ছড়িয়ে পড়তে থাকে। ক্রিকেট বিশ্ব অসাধারণ এক ক্রিকেট বোলিং জাদুকরের সন্ধান পেল। আর সেই জাদুকর সাতক্ষীরার বিশ লক্ষাধীক মানুষের সোনার ছেলে মুস্তাফিজ। বাংলাদেশে সর্বত্র মুস্তাফিজ আর মুস্তাফিজ দেশময় আলোকিত নাম। আমাদের সাতক্ষীরার অপর সোনার ছেলে সৌম্য সরকার। কৃতি এবং প্রতিশ্র“তিশীল এই সোনার ছেলে অর্ধশতাধিক রান সংগ্রহ করে দুঃখজনক ভাবে ভূল বোঝাবুঝির কারণে রান আউট হয়। উৎসব আর উচ্ছাসের অপর নাম তাসকিন, সাকিব, তামিম, সাব্বির, মাশরাফি। বৃহস্পতিবার রাতে ভারতের পরাজয়, বাংলাদেশের জয় এবং আলোকিত, আলোচিত মুস্তাফিজকে মনে রাখবে দেশবাসি। মুস্তাফিজের নাম আলোচিত হওয়ার সাথে সাতক্ষীরার নাম উচ্ছাসিত এবং মর্যাদার সাথে আলোচিত হচ্ছে। কারণ সাতক্ষীরার সন্তান মুস্তাফিজ। ম্যাচসেরা পুরষ্কারে স্বল্পভাষী লাজুক মুস্তাফিজ মিডিয়াকে জানালেন তার চেষ্টা ছিল ভাল করার। তার সেই ভাল করা, ভাল খেলায় ক্ষত বিক্ষত হলো ভারত বধ কাব্য।






মন্তব্য চালু নেই