মেইন ম্যেনু

‘বাচ্চা ছেলেটা’ আইএসআইয়ের এজেন্ট

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক জিয়াকে ‘বাচ্চা ছেলে’আখ্যা দিয়ে তাকে আইএসআইয়ের এজেন্ট বললেন অভিনেতা ও বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সিনিয়র সহ-সভাপতি এটিএম শামসুজ্জামান।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক জিয়া ‘বাচ্চা ছেলেটা’ আইএসআইয়ের এজেন্ট। তারেক জিয়া তার মাকে ষড়যন্ত্রের নীল নকশা এঁকে দেবেন। সেই নীল নকশা খালেদা জিয়া দেশে এসে বাস্তবায়ন করতে পারেন। এ জন্য দেশবাসীকে সজাগ থাকতে হবে। তিনি যাতে দেশে আসার পর পেট্রোল বোমা মেরে মানুষ হত্যা ও গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করতে না পারেন।

শনিবার ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের ৩৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে এক কর্মী সভায় সভাপতির বক্তব্যে অভিনেতা ও বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সিনিয়র সহ-সভাপতি এটিএম শামসুজ্জামান এসব কথা বলেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়া লন্ডনে তার ছেলে তারেক রহমানের সঙ্গে দেখা করতে যাননি। তিনি লন্ডনে গেছেন ষড়যন্ত্র করতে। তাই তিনি দেশে ফিরে পাগলা কুকুরের মতো আচরণ করেত পারেন।’

খালেদা জিয়ার এখন স্মৃতিভ্রষ্ট হয়ে গেছে দাবি করে এটিএম শামসুজ্জামান বলেন, ‘বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার সকল ষড়যন্ত্র ইতোমধ্যে ব্যর্থ হয়েছে। এখন আবার নতুন ষড়যন্ত্র করার জন্য লন্ডনে গেছেন তার ছেলে তারেক রহমানের কাছে। খালেদা জিয়া এখন আর জনগণের সঙ্গে নেই। তিনি জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছেন।’

প্রবীন এই অভিনেতা দাবি করেন, ‘খালেদা জিয়া একটি নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করার ষড়যন্ত্র চেষ্টা করেছে। এই সব ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে আমাদের সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। ১৯৭৫ সাল আর ২০১৫ সাল এক নয়। ৭৫ সালের ১৫ আগস্টের মতো কোনো ঘটনা আর এদেশে ঘটতে দেয়া হবে না।’

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সহ-সভাপতি ড. ইনামুল হক, মোবারক আলী শিকদার, কবী নাসির আহমেদ, কবী রবীন্দ্র গোপ, সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই