মেইন ম্যেনু

বাণিজ্যিকভাবে বসতবাড়ীতে সংরক্ষণ হবে আলু

বাণিজ্যিকভিত্তিতে বসতবাড়ীতে আলু সংরক্ষণ, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী। এজন্য বেশ কিছু পদক্ষেপও নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) সকালে দশম জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে সাংসদ মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী’র এক প্রশ্নের জবাবে কৃষিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি জানান, আলুর সংরক্ষণ কৌশল বিষয়ে অবহিতকরণের জন্য আলু মৌসুমে ১০ হাজার পোস্টার বিতরণ করার কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে। এছাড়া আলু উৎপাদনকারী প্রধান ১১টি জেলার (রংপুর, মুন্সিগঞ্জ, রাজশাহী, জয়পুরহাট, বগুড়া, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, নীলফামারী, নওগা, কুমিল্লা ও চাঁদপুর) ৪০টি উপজেলায় ‘বসতবাড়িতে আলু সংরক্ষণ, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও বিপণন কার্যক্রম’ শীর্ষক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে বলে কৃষিমন্ত্রী জানান।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘সিলেট অঞ্চলে শস্যের নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণের (বিপণন অঙ্গ) মাধ্যমে সিলেট বিভাগের ৪টি জেলায় ৪টি অ্যাসেম্বল সেন্টার ও সিলেট বিভাগীয় শহরে একটি অফিস কাম ট্রেনিং অ্যান্ড প্রসেসিং সেন্টার নির্মাণের প্রকল্প নেয়া হয়েছে।’






মন্তব্য চালু নেই