মেইন ম্যেনু

বাতি জ্বলবে লবণ পানি দিয়ে!

একগ্লাস পানি আর দুই চামচ লবণের সাহায্যে টানা আটঘন্টা আলো দিতে পারে এমন একটি বাতি উদ্ভাবন করেছে ফিলিপাইনের একটি প্রতিষ্ঠান। এই বাতিকে বলা হচ্ছে ‘দ্যা সাসটেইনেবল অ্যালটারনেটিভ লাইটিং (এসএএলটি)। এই বাতিটি ইউএসবি পোর্টের মাধ্যমে স্মার্টফোনকে চার্জ দিতে সক্ষম।

বাতিটির উদ্ভাবকরা জানিয়েছে, ফিলিপাইনন মূলত দ্বীপ রাষ্ট্র। এখানের অনেক দ্বীপেই ইলেকট্রিসিটি নেই। দ্বীপের বাসিন্দারা রাতের অন্ধকার দূর করতে কেরোসিনের বাতি, ব্যাটারি চালিত ল্যাম্প কিংবা মোমবাতি ব্যবহার করে। এগুলো অনেকটাই ব্যয়বহুল। এসব কথা চিন্তা করে তারা এই বাতিটি উদ্ভাবন করেছেন। যেটি চালাতে মাত্র দুইটি উপকরণ লাগে। এসব উপকরণ ঘরেই রয়েছে। এমনকি সমুদ্রের লবানাক্ত জল দিয়েই এই বাতিটি জ্বালানো যায়।

saltউদ্ভাবকরা তাদের ওয়েব সাইটের মাধ্যমে জানিয়েছেন, বাতিটি সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণ করলে ছয় মাস ধরে প্রতিদিন আটঘন্টা করে আলো পাওয়া সম্ভব। পাশাপাশি বাতিটি দিয়ে স্মার্টফোনের মত ছোটখাটো ডিভাইস চার্জ করা যাবে। এই বাতির খরচও কম।

বাতিটিতে রয়েছে একটি ব্যাটারি। এই ব্যাটারি গ্যালভানিক সেল দিয়ে তৈরি। এই গ্যালভানিক সেল লবন পানির ইলেকট্রোলাইটস পরিবর্তন করতে পারে। যখন ইলেকট্রোডস ইলেকট্রোলাইটে রূপান্তরিত হয় তখন উৎপাদিত শক্তি এলইডি ল্যাম্প জ্বালাতে সাহায্য করে।

বর্তমানে এই বাতিটি প্রোটোটাইপ পর্যায়ে রয়েছে। খুব শিগগিরই বাণিজ্যিক ভাবে এটি বাজার ছাড়া হবে। এজন্য এখন প্রি-অর্ডার নেয়া হচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই