মেইন ম্যেনু

বাবাকে খুব মনে পড়ছে : সদ্য কারামুক্ত সঞ্জয় দত্ত

‘২৩ বছর ধরে এই দিনটার জন্য অপেক্ষা করছিলাম। আজ সেই দিন। এই দিনে বাবাকে খুব মনে পড়ছে।’

বেআইনি অস্ত্র রাখার দায়ে প্রায় পাঁচ বছর কারাগারে থাকার পর বৃহস্পতিবার মুক্তি পেয়ে নিজের বাড়িতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এমনটাই বললেন বলিউডের মুন্নাভাই খ্যাত সঞ্জয় দত্ত।

সাদা কুর্তা, জিন্স পরিহিত মুন্না ভাই বলেন, ‘এ এক অভূতপূর্ব অনুভূতি। এই দেশ আমার মা। একজন ভারতীয় হিসেবে আমি গর্বিত।’

বেআইনি অস্ত্র রাখার দায়ে চার বছর ৩ মাস ১৪ দিন জেল খাটার পর বৃহস্পতিবার সকালে মুক্তি পান বলিউড অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে পুণের ইয়েরবরা কারাগার থেকে মুক্তি পান। সড়ক পথে না গিয়ে চাটার্ড বিমানে করে সেখান থেকে মুম্বাই যান তিনি। সেখান থেকে পালি হিলসের নিজ বাড়িতে যান ‘মুন্নভাই’।

মুক্তির পর কারাফটকে উপস্থিত সাংবাদিকদের সামনে সঞ্জয় বলেন, ‘দর্শকদের সমর্থনের কারণেই আমি আজ জেলের বাইরে। বন্ধুরা, স্বাধীনতার পথ কখনোই সহজ নয়।’

বাইরের জগতে ‘সেলিব্রিটি’ হলেও কারাগারে একজন সাধারণ কয়েদির মতো শ্রম দিতে হয়েছে ‘মুন্নাভাইকে’। প্রতিদিন ৫০ রূপি পারিশ্রমিক হিসেবে চার বছর ঠোঙা বানিয়েছেন সঞ্জয়। এতে তার আয় হয়েছিল ৩৮ হাজার রূপি কিন্তু দৈনন্দিন কাজে প্রায় সব অর্থই ব্যয় করে ফেলেছেন সঞ্জয়। মুক্তি পাওয়ার সময় তার পকেটে ছিল মাত্র ৪৫০ রূপি।

১৯৯৩ সালের ১২ মার্চ পরপর ১৩টি বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে ভারতের বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বাই৷ বেআইনিভাবে অস্ত্র রাখার অভিযোগে ওই বছরের ১৯ এপ্রিল গ্রেফতার হন সঞ্জয় দত্ত। ২০০৬ সালে সঞ্জয় দত্তকে ৬ বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেন মুম্বাইয়ের টাডা আদালত৷

২০০৭ সালে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে জামিনে মুক্তি পান তিনি। এক আপিলের পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৩ সালে সঞ্জয় দত্তের কারাদণ্ডের মেয়াদ ৬ বছর থেকে কমিয়ে ৫ বছর করেন সুপ্রিম কোর্ট৷ সেই বছরের ১০ মে শাস্তি পুনর্বিবেচনার আবেদন খারিজ করে সঞ্জয় দত্তকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন সর্বোচ্চ আদালত।

তিনি ২০১৩ সালের টাডা আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। এরপর কয়েকবার প্যারোলে মুক্ত হয়ে বাইরে এবং পরিবারের সঙ্গে থেকেছেন সঞ্জয়। ভাল আচরণের ৫৬ বছর বয়সী অভিনেতাকে মুক্তির প্রস্তাব অনুমোদন করে মহারাষ্ট্র রাজ্য সরকার।

জেলে থাকা অবস্থায় সঞ্জয় রাজকুমার হিরানির ‘পিকে’ ছবিতে অভিনয় করেন। ওই সময় হিরানি জানিয়েছিলেন, সঞ্জয় জেল থেকে মুক্তি পেলে ‘মুন্নাভাই’ সিরিজের তৃতীয় ছবি তৈরির কাজে হাত দেবেন।

সঞ্জয়ের জীবনীভিত্তিক একটি ছবিও পরিচালনার কথা জানান হিরানি। এতে সঞ্জয়ের ভূমিকায় রণবীর কাপুর আর তার বাবা সুনীল দত্তের চরিত্রে অমিতাভ বচ্চনের অভিনয়ের কথাও জানান হিরানি। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস






মন্তব্য চালু নেই