মেইন ম্যেনু

বাবা মায়ের উপর ক্ষুব্ধ হয়ে চার শিশু সন্তানের আত্মহত্যা

চীনের গুইঝু প্রদেশের বিজি শহরে বিষপানে আত্মহত্যা করেছে ৪ শিশু। এদের মধ্যে তিনজন মেয়ে এবং একজন ছেলে আছে যাদের সবরাই বয়স ৫ থেকে ১৩ এর মধ্যে। এরা সম্পর্কে ভাইবোন। মঙ্গলবার এদেরকে উদ্ধার করার পর হাসপাতালে মারা যায়।

চীনের সংবাদমাধ্যম সিসিটিভির বরাত দিয়ে অন্যান্য সংবাদমাধ্যম জানায়, এদের মধ্যে সবচেয়ে বড়জন একটি সুইসাইড নোট লিখে যায়, যেখানে লিখা ছিলো, ‘অাজকে চলে যাওয়ার দিন।’

এ শিশুদের দূর সম্পর্কের আত্মীয় জিয়াও ওয়েনিং বার্তা সংস্থাকে জানান, তাদের খাবার বা কাপড়চোপড়ের অভাব ছিলো না, কিন্তু তারা বাবা মায়ের পর্যাপ্ত ভালোবাসা আদর স্নেহ থেকে বিচ্ছিন্ন ছিলো।

২০১৪ সালে বাবার সাথে ঝগড়া হওয়ার পর তাদের মা তাদের ছেড়ে চলে যায়। আর চাম মাস আগে তাদের বাবাও তাদের ছেড়ে চলে যায়। চলে যাওয়ার সময় সন্তানদের জন্য একটি ডেবিট কার্ড রেখে যান তিনি, যাতে ৩৬৩ মার্কিন ডলার ছিলো।

For China’s leftover children, hope elusive as four more swallow pesticide https://t.co/zVjGe7tRtK pic.twitter.com/Ml1QtKZG1P— CCTVNEWS (@cctvnews) June 12, 2015

এ ঘটনা চীনে তীব্র হইচই ফেলে দিয়েছে। স্থানীয় অনেক কর্মকর্তাকে বহিস্তার করা হয়েছে আর দেশটির সিভিল অ্যাফেয়ার মন্ত্রনালয়ের কার্যকারিতা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

তীব্র সমালোচনার প্রেক্ষিতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াং শুক্রবার মুখ খুলেছেন। এ ধরনের ঘটনা যাতে দ্বিতীয়বার না ঘটে, সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন তিনি। প্রধানেমন্ত্রী বলেন, এ ধরনের ঘটনা দ্বিতীয়বার হতে দেয়া হবে না।

এ ঘটনা চীনের দরিদ্র শিশুদের নিরাপত্তা ঝুঁকির প্রশ্ন নতুন করে সামনে নিয়ে এসেছে। চীনের গ্রামাঞ্চলে দরিদ্র বাবা মায়েরা তাদের শিশুদের ছেড়ে চলে চলে যায়।






মন্তব্য চালু নেই