মেইন ম্যেনু

বাবুল সুপ্রিয়ের দ্বিতীয় বিয়েতে তারকাদের হাট

দ্বিতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন বাবুল সুপ্রিয়। গায়ক, অভিনেতা, রাজনীতিক বাবুলের বিয়ের পার্টিতে নানা মহলের মেলবন্ধন হল। যোগ দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের দুই সাংসদ।

বাবুলের আসল নাম সুপ্রিয় বড়াল। তবে উত্তরপাড়ার বাবুল বলিউডে ডাকনামেই খ্যাতি পান। আসানসোল থেকে সাংসদ হয়েছেন, কেন্দ্রের মন্ত্রী হয়েছেন সুপ্রিয় নামেই। তবে, ‘বাবুল’ নামেই পরিচিতি বেশি। আসানসোলে তাঁকে জেতানোর পরে সেখানে তাঁকে দেখতে না পাওয়া নিয়ে অভিযোগ, মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া ঝালমুড়ি খাওয়া নিয়ে বিতর্ক ইত্যাদি আজ নয়, আজ একটাই খবর বাবুলের দ্বিতীয় বিয়ে।

বাবুল সুপ্রিয় প্রথমবার বিয়ে করেন ১৯৯৫ সালে। ১৯৯৯ সালে একটি মেয়ে হয় শর্মিলী। কিন্তু সেই বিয়ে ভেঙে যায় ২০১৫ সালের অক্টোবরে। এবার দ্বিতীয় বিয়ে। বিয়ে হচ্ছে এয়ার হোস্টেস রচনা শর্মার সঙ্গে। পাত্রী জেট এয়ারওয়েজে চাকরি করেন।

বাবুলের জীবনে সবকিছুই হয় অন্যরকমভাবে। প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল টরেন্টোয় শাহরুখ খানের একটি কনসার্টে গিয়ে। রাজনীতিতে অভিষেকের সূচনা হয় বিমানে। বাবা রামদেবের পাশের আসনে বসেই প্রস্তাব পান রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার।

এবার পাত্রীও পছন্দ করেছেন বিমানে বসে। বিমানযাত্রী হিসেবে প্লেনে উঠে, পাত্রী পছন্দ করে ফেলেন। এর পরে ফোন নম্বর নিয়ে নেন। এসএমএস চলতে থাকে। তার পরে বিয়ে। মাঝে আংটি বদলটা হয়ে গিয়েছে অবশ্য।

মঙ্গলবার রাত আটটায় পার্টি শুরু হয় দিল্লির অশোকা হোটেলে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী-সহ মন্ত্রিসভার অন্যান্য সদস্যরা হাজির থাকবেন বলে খবর। আসছেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। রাজ্যে থেকেও বিজেপি নেতারা গিয়েছেন বাবুলের বিয়ের সাক্ষী থাকতে।

প্রাক্তন ও বর্তমান রাজ্য সভাপতি রাহুল সিংহ, দিলীপ ঘোষ ছাড়াও শমীক ভট্টাচার্য, রীতেশ তিওয়ারিরা উপস্থিত থাকছেন। বলিউডের বহু তারাকও এদিনের পার্টিতে আমন্ত্রিত। যাচ্ছেন বাবুলের টলিউডের বন্ধুরাও।

এদিনের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তবে তিনি যোগ দিতে পারছেন না বলে খবর। বাবুলকে ইতিমধ্যেই এসএমএস করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি। তবে অশোকা হোটেলের অনুষ্ঠানে তৃণমূল কংগ্রেসর পক্ষে যোগ দেন দুই সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায় ও কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।-এবেলা






মন্তব্য চালু নেই