মেইন ম্যেনু

বালিয়াকান্দিতে উন্নয়ন মেলা উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান

সরকারের উন্নয়নমুলক কার্যক্রম ও ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে গৃহীত পদক্ষেপ সমুহ জনসাধারনের নিকট তুলে ধরার উদ্দেশ্যে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা পরিষদের উদ্দ্যোগে সুশীল সমাজের অংশগ্রহনে মঙ্গলবার দিনব্যাপী ‘উন্নয়ন মেলা’ ১৫ উপলক্ষ্যে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা , আলোচনা সভা, সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান ও উন্নয়নমুলক কর্মকান্ডের ভিডিও প্রদর্শন করা হয়।

উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল হাসানের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ হারুন অর রশিদ মানিক, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খোদেজা বেগম , উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আঃ হান্নান মাষ্টার, সাধারন সম্পাদক শামসুল আলম মিয়া সুফি, বালিয়াকান্দি কলেজের অধ্যক্ষ গোলাম মোস্তফা, প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মনিরুল ইসলাম। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ, বিভিন্ন উন্নয়ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা, মিডিয়া প্রতিনিধি, নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। আলোচনা সভায় বিভিন্ন দপ্তরের উন্নয়নমুলক কর্মকান্ড জনগণের সামনে তুলে ধরা হয়।

বক্তৃতা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আজকে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বিদেশের মাটিতে উজ্বল করেছেন। তিনি সহ¯্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষমাত্রা অর্জনে বিশ্বের সকল দেশের কাছে আমাদের দেশের সম্মান বৃদ্ধি করেছেন। তার নেতৃত্বে ২০২১ সালের মধ্যে আমাদের দেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হবে। আমরা ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে রুপান্তরিত হবো। আসুন আমরা সকলে মিলে তার হাতকে শক্তিশালী করি, জাতীর পিতার স্বপ্নকে প্রতিষ্ঠা করি।

একটি গণতান্ত্রিক ও অসাম্প্রদায়ীক বাংলাদেশ গড়তে আমাদের সকলকে একসাথে কাজ করতে হবে, সরকারকে সহযোগীতা করতে হবে। সকলে সমান অধিকার ভোগ করতে হলে ন্যায় ও ন্যায্যতার সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠা করতে হবে। আর তার জন্য দরকার দেশের উন্নয়ন। আমরা এমডিজি’র সকল লক্ষ্য অর্জনে সফলতা দেখিয়েছি, প্রধানমন্ত্রী দেশের জন্য পুরুস্কার বয়ে এনছেন, আশাকরি এসডিজি অর্জনেও বাংলাদেশ সফল হবে। পরে সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে সম্পন্ন হয়।






মন্তব্য চালু নেই