মেইন ম্যেনু

বাসর নিয়ে তরুণ-তরুণীদের ভাবনার শেষ নেই, তাই এলো নতুন জরিপ!

সবার জীবনেই কমবেশি ফুলশয্যার রাত আসে।এই রাত নিয়ে তরুণ-তরুণীদের ভাবনার যেন শেষ নেই।এই রাত নিয়ে অনেকে আবার রঙিন স্বপ্নের জাল বুনে ফেলে। তবে কাঙ্খিত এই রাজনী নিয়ে ভীতিও কাজ করে অনেকের মধ্যে।বর-কনে যদি হয় অপরিচিত, তাহলে তো কথাই নেই, ভীতির মাত্রাটা যেন আরো বেড়ে যায়। সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের এক অনলাইন জরিপে বলা হয়েছে, মাত্র এক তৃতীয়াংশ দম্পতি ফুলশয্যার রাতে শারীরিক সম্পর্ক করেন।

নতুন এই জরিপের তথ্যমতে, এর মূল কারণ হচ্ছে অবসাদ বা ক্লান্তি। জরিপে অংশগ্রহণকারী প্রায় অর্ধেক সংখ্যক ব্যক্তি বলেছেন, তারা খুবই ক্লান্ত ছিলেন ফুলশয্যার রাতে। তাদের প্রত্যেকের বয়স ছিল ৪০ এর নিচে। তবে প্রতি পাঁচজনের মধ্যে একজন বলেছেন, মাতাল(বিয়ের অনুষ্ঠানে মদ পান করার কারনে)থাকার কারণে শারীরিক সম্পর্ক করতে পারেননি তারা।

ষাটোর্ধ্ব তিন চতুর্থাংশ স্বীকার করেছেন তার বিয়ের রাতে সেক্স করেছেন। ১৮ থেকে ৩৯ বছর বয়সী ৮০ শতাংশ ব্যক্তি মনেই করতে পারেননি তারা ফুলশয্যার রাতে তারা সেক্স করেছেন কী না। এর কারণ হলো, ক্লান্তি, অ্যালকোহল গ্রহণ বা অন্য কারণে।

যুক্তরাজ্যে বিবাহবহির্ভূত যৌন সম্পর্কের পরিমাণ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ১৮ থেকে ৩৯ বছর বয়সী ৬৪ শতাংশ ব্যক্তি বিয়ের আগে একাধিক সঙ্গীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করেছেন। আর ৬০ এর উপরে যাদের বয়স তাদের ৪৪ শতাংশ বিয়ের আগে যৌন সম্পর্ক করেছেন বলে স্বীকার করেছেন।

ইউগভের এই জরিপে যুক্তরাজ্যের ৭১১ জন বিবাহিত নারী-পুরুষ অংশগ্রহণ করেন। জরিপে অংশগ্রহণকারী ৬০ শতাংশ পুরুষ স্বীকার করেছেন, তারা বিয়ের আগে অন্য সঙ্গীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করেছেন। আর নারীদের ক্ষেত্রে এর পরিমাণ ৪৬ শতাংশ।






মন্তব্য চালু নেই