মেইন ম্যেনু

বাস ভাড়ায় তামাশা, ঘুমিয়ে বাস মালিক

আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমার পর দেশে নাম মাত্র কিছু টাকা কমিয়ে জনগণের সাথে তামাশা করেছে সরকার। এখনপর্যন্ত পরিবহন ভাড়া কমেনি এক পয়শাও। বাস মালিকরা কারও কথায় শুনছে না সব মালিক জেগে জেগে ঘুমায়।

আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম অর্ধকে নেমে এলেও এখন পর্যন্ত ১ পয়সারও সুবিধা পাচ্ছে না সাধারণ মানুষ। বাস ভাড়ানিয়ে সাধারণ মানুষ প্রতিদিন বাস শ্রমিকদের সাথে বাক-বিতন্ডে জড়িয়ে পড়ছে। কিন্তু, এর সমাধান কেউ দিতে পারছেন না।

সংশ্লিষ্ঠরা বলছেন, আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কম হওয়ার পরও দেশের মানুষ কোন সুবিধা না পাওয়ায় অনেকে আন্দোলনে যেতেন। তাদের মুখ বন্ধ করতে সরকার ডিজেলের মূল্য তিন টাকা ও বাসভাড়া প্রতি কিলোমিটারে তিন পয়সা কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

রাজধানীর ঝিগাতলা থেকে মালিবাগ যাবেন ফরিদ সে তরঙ্গপ্লাস বাসের জন্য টিকিট করবে, টিকিটের দাম চাওয়া হয়েছে ২৫ টাকা সে ২৫ টাকা দিতে চাইলে তাকে বাসের হেলপার উঠতে নিষেধ করে, তানজিনা হেলপারকে বলে আমি এখান থেকে আগে ১০ টাকায় যেতাম কিন্তু ৪ বছরের ব্যাবধানে ২৫ টাকা হয়ে গেছে তেলের দাম কমছে সরকার ভাড়া কমাতে বলেছে তোমরা ১ টাকাও কমালে না জবাবে হেলপার বলে আমাদের কিছু করার নেই মালিকদের আপনারা বলেন। আর সরকার যে পয়সা কমিয়েছে হিসেবে এখান থেকে যে পয়সা আপনি পান সেটা দেওয়া আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়।

জ্বালানির দাম বাড়লে এক রকম হিসাব, আর কমলে আরেক রকম। ডিজেলের দাম কমার পরিপ্রেক্ষিতে পরিবহন মালিকেরা বাসভাড়া কমানোর ক্ষেত্রে যে অবস্থান নিলেন, তাতে এ প্রবণতাই প্রকাশ পেল। ডিজেলের মূল্য তিন টাকা কমানোর পরিপ্রেক্ষিতে দূরপাল্লার বাসভাড়া প্রতি কিলোমিটারে তিন পয়সা কমানো হল। অথচ ২০১২ সালে ডিজেলের মূল্য ৫ টাকা টাকা বাড়ার সূত্র ধরে বাসভাড়া প্রতি কিলোমিটারে ১৫ পয়সা বাড়ানো হয়েছিল।

সরকারের জ্বালানি তেল আমদানি ও বিপণনকারী সংস্থা বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের চেয়ারম্যান এ এম বদরুদ্দোজা জানান, আমরা পর্যায়ক্রমে তেলের দাম কমাব। চাইলে একবারে তেলের দাম কমানো যায় না। যে কেন সময় আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বেড়ে যেতে পারে। বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমায় গত দুই বছর থেকে সব ধরনের তেল বিক্রি করে মুনাফা করছে বিপিসি।

তিনি বলেন, গত অর্থবছরে (২০১৪-১৫) বিপিসি পাঁচ হাজার কোটি টাকা লাভ করেছে। আর চলতি অর্থবছরে (২০১৫-১৬) ৭ হাজার কোটি টাকা লাভের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। এর মধ্যেই অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে মুনাফা হয়েছে প্রায় ২ হাজার কোটি টাকা।এদিকে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বাসভাড়া নাম মাত্র কিছু কমানোর নির্দেশ দিলেও এখন পর্য়ন্ত কোন রোটে এক পয়সাও কনেনি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই