মেইন ম্যেনু

বাড়িতে আটক রেখে অভিনব কায়দায় ছাত্রীকে ধর্ষণ

বগুড়ার ধুনট মানিক উদ্দিন (২৫) নামে এক বখাটের বিরুদ্ধে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। খবর পেয়ে পুলিশ শনিবার সন্ধ্যায় ধর্ষকের বাড়ি থেকে ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে। এই ঘটনায় থানায় অপহরণ ও ধর্ষন মামলা দায়ের হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গোসাইবাড়ি ইউনিয়নের পূর্ব গুয়াডুহরী গ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে মানিক পার্শ্ববতি গ্রামের একটি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে প্রায় এক বছর ধরে প্রেম প্রস্তাব দেয়। কিন্ত সে প্রেমে সাড়া না দেওয়ায় ক্ষুদ্ধ হয়ে ওঠে বখাটে মানিক। এক পর্যায়ে ৮মার্চ সন্ধ্যায় স্কুল ছাত্রী পাশের বাড়ি একটি বিয়ে অনুষ্ঠান থেকে নিজের বাড়িতে ফেরার পথে তাকে অপহরন করে মানিক।

এরপর বিভিন্ন স্থানে চারদিন ধরে আটক রেখে তাকে ধর্ষন করে। স্কুল ছাত্রীর পারিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার সন্ধ্যায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে মানিকের বাড়ি থেকে ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মানিক উদ্দিন বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় স্কুল ছাত্রী নিজেই বাদি হয়ে শনিবার রাতে মানিক উদ্দিনের বিরুদ্ধে তাকে অপহরণ ও ধর্ষনের মামলা দায়ের করেন।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, স্কুলছাত্রীর দায়ের করা অপহরণ ও ধর্ষন মামলার প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। আসামী মানিক উদ্দিনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। স্কুলছাত্রী শারীরিক ভাবে অসুস্থ্য থাকার কারণে তাকে পরে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।






মন্তব্য চালু নেই