মেইন ম্যেনু

বাড়ি বাড়ি চিঠি পাঠিয়ে ৩০ বছরের পেশাদার চোরের ক্ষমা প্রার্থনা

দীর্ঘ ৩০ বছর দরে চুরি করেছেন। এত বছর তার একটাই পরিচয় ছিল ‘চোর’। অবশেষে ‘সুমতি’ হয়েছে সেই চোরের। আর তাই সে এখন ক্ষমা চাইতে দরজায় দরজায় ঘুরছে। ঘটনাটি কর্নাটকের।

চুরিবিদ্যায় হাত পাকিয়েছে বহুদিন। তারপর দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে চুরি করাই ছিল তার ‘রুটিরুজি’। বহু লোকের বহু জিনিস চুরি করেছে সে। চুরি করেছে বহু বাড়িতেও। কিন্তু এখন সেই চোরের ‘বোধোদয়’ হয়েছে।

বিবেকের দংশনে ভুগছে সে। আর তাই বাড়ি বাড়ি গিয়ে চিঠি দিয়ে ক্ষমা চাইছে চোর বাবাজীবন। ৪৬ বছরের সেই ব্যক্তি এখন নিজেকে সমাজসেবার কাজেও যুক্ত করেছেন। বিশ্বে অবশ্য এধরনের উদাহরণ নতুন নয়। এর আগে বিদেশে এভাবে অপরাধের পর ক্ষমা চাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।






মন্তব্য চালু নেই