মেইন ম্যেনু

বায়োমেট্রিক জালিয়াতি: গ্রাহককে এসএমএসে জানাবে অপাটেররা

সিম পুনঃনিবন্ধনের সময় একাধিকবার আঙ্গুলের ছাপ নিয়ে অন্য সিম নিবন্ধন হয়েছে কি না তা এসএমএসের মাধ্যমে গ্রাহককে জানাবে অপাটেররা। আগামী ৭ জুলাইয়ের মধ্যেই এই তথ্য জানাবে তারা।

বুধবার তেজগাঁও জোনের পুলিশের উপ কমিশনার (ডিসি) কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুরেটরি কমিশনের (বিটিআরসি) ব্যান্ডউইথ স্পেকট্রাম পরিচালক লেফট্যানেন্ট কর্নেল মঈন।

তিনি বলেন, ‘একটি এনআইপির বিপরীতে কতটি সিম নিবন্ধিত হয়েছে তা আগামী ৭ জুলাইয়ের মধ্যেই মেসেজ পাঠিয়ে প্রত্যেক গ্রাহককে জানাবে মোবাইল অপারেটর কোম্পানিগুলো।’

তিনি আরো বলেন, ‘যদি কোনো গ্রাহকের নিবন্ধিত সিমের চেয়ে বেশি সিমের তথ্য জানানো হয়, সে ক্ষেত্রে অবশ্যই নিকটস্থ সেবা কেন্দ্রে গিয়ে অভিযোগ জানিয়ে অতিরিক্ত সিমগুলো বন্ধ করে দিবেন।’

উল্লেখ্য, সিম পুনঃনিবন্ধনের সময় অনেক এজেন্ট আঙ্গুলের ছাপ মিলছে না বা অন্য কোনো সমস্যা অজুহাত দেখিয়ে একাধিকবার ছাপ নিয়েছে। এর আড়ালে যে অবৈধ ব্যবসা করেছে তারা এটা এবার ধরা পড়লো। জালিয়াতরা ওই সব সিম পরে চড়া দামে বিক্রি করেছে। জালিয়াতির প্রমাণ পাওয়ার পর এয়ারটেলের এজেন্ট ও কর্মকর্তাসহ ২১ জনকে আটক করেছে পুলিশ। ধারণা করা হচ্ছে, এরকম হাজার সিম জালিয়াতি করা হয়েছে। সিম পুনঃনিবন্ধনের নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার পর সরকারের পক্ষ থেকে প্রিঅ্যাকটিভ সিম শনাক্ত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়। আর তাতেই এই জালিয়াতি ধরা পড়ে।






মন্তব্য চালু নেই