মেইন ম্যেনু

বিএনপিতে খালেদাই একমাত্র পুরুষ, বাকিরা মেয়ে!

বিএনপির স্থায়ী কমিটির প্রতিটি সদস্যকে মেয়েদের সঙ্গে তুলনা করেছেন দলটির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু। তিনি বলেছেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ব্যতিত দলের স্থায়ী কমিটির প্রতিটি সদস্যদের কর্মকাণ্ড মেয়েদের মতো। তারা কথা ও কাজ করেন মেয়েদের মতো। তাই বিএনপিতে বেগম খালেদা জিয়াই একমাত্র পুরুষ। আর সবাইকে মেয়ে বললে ভুল হবে না।’

সোমবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে গঠনতন্ত্র বিষয়ক নারী ও যুব সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

শাসুজ্জামান দুদু বলেন, ‘বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের সরকারবিরোধী আন্দোলনের সময় বেগম খালেদা জিয়া তিন মাস গুলশান রাজনৈতিক কার্যালয়ে অবরুদ্ধ ছিলেন। কিন্তু সে সময় দলের স্থায়ী কমিটির কোনো সদস্যই ম্যাডামের পাশে দাঁড়াননি। এমনকি তারা দলের সকল সিদ্ধান্ত ম্যাডামের উপর চাপিয়ে দেন। তারা নিজ উদ্যোগে কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন না।’

স্থায়ী কমিটির সদস্যদের উদ্দেশ্য করে দুদু বলেন, ‘দলের সকল সিদ্ধান্ত ম্যাডারের চাপিয়ে দেবেন না। নিজরাও দলের জন্য সিদ্ধান্ত নিন।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কঠোর সমালোচনা করে বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘শেখ হাসিনা সেনাবাহিনী, বিদেশি মহল ও ব্যবসায়ীদের সাথে ষড়যন্ত্র করে ক্ষমতায় এসেছিলেন। তাই বলা যায়, তিনি ষড়যন্ত্র সবচেয়ে ভালো বুঝেন।’

তিনি বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া জনপ্রিয়তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন। শেখ হাসিনার মতো ষড়যন্ত্র করে ক্ষমতায় আসেননি বেগম জিয়া। খালেদা জিয়ার রাজনীতি নারী-পুরুষের জন্য অনুকরণীয়।’

নেতকর্মীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘কমিটি গঠনে খালেদা জিয়াকে দায়ী করবেন না। রাজনীতি হচ্ছে সৃজনশীলতার অন্যতম ধাপ। দলের যে জায়গায় যিনি আছেন তার সে জায়গা থেকে দায়িত্ব নিতে হবে। ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, কৃষক দলের কমিটি ও সাংগঠনিক কাজ দলের নেতাদেরকেই করতে হবে।’

তিনি জানান, আগামী ডিসেম্বরে কৃষক দলের কাউন্সিল হবে। আর এর জন্য সম্মেলন করে তার প্রস্তুতি নিতে হবে।
এর আগে ছাত্রদল, যুবদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রায় ৫০ নেতাকর্মী বক্তব্য তুলে ধরেন।

গঠনতন্ত্র বিষয়ক নারী ও যুব সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন সাবেক সংসদ সদস্য নিলুফার চৌধুরী মনি, ছাত্রদলের সহ-সভাপতি এজমল হোসেন পাইলট, ছাত্রদলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নাজিম মাহমুদ প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই