মেইন ম্যেনু

বিএনপির দপ্তরের দায়িত্বে রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভীকে কেন্দ্রীয় দপ্তরের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তিনি বিদায়ী কমিটিতে দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্ম মহাসচিব ছিলেন।

শনিবার (৬ আগস্ট) দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পক্ষে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করেন।

নতুন নির্বাহী কমিটিতে তিনজনকে সহ-দপ্তর সম্পাদক করা হয়েছে। তারা হলেন, তাইফুল ইসলাম টিপু, মুনির হোসেন ও বেলাল আহমেদ। এদের মধ্যে টিপু বিদায়ী কমিটিতে একই পদে ছিলেন। মুনির হোসেন স্বেচ্ছাসেবক দলের বর্তমান সিনিয়র সহ-সভাপতি। আর বেলাল আহমেদ বিদায়ী কমিটির নির্বাহী সদস্য ছিলেন।

বিদায়ী কমিটিতে চারজন সহ-দপ্তর সম্পাদক ছিলেন। তারা হলেন আবদুল লতিফ জনি, কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, আসাদুল করিম শাহীন ও তাইফুল ইসলাম টিপু। এদের মধ্যে নতুন কমিটিতে কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম ও আসাদুল করিম শাহীনকে সহ-প্রচার সম্পাদক করা হয়েছে। এছাড়া বিদায়ী কমিটির নির্বাহী সদস্য আমিরুল ইসলাম আলিমকেও সহ-প্রচার সম্পাদক করা হয়েছে।

তবে বিদায়ী কমিটির সহ-দপ্তর সম্পাদক আবদুল লতিফ জনিকে নতুন কমিটিতে নির্বাহী সদস্য করা হয়েছে।

গত ১৯ মার্চ বিএনপির ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। ওই কাউন্সিলের মাধ্যমে বিএনপির গঠনতন্ত্রে ‘এক নেতার এক পদ’র বিধান সংযুক্ত করা হয়। যদিও সাময়িক ব্যতিক্রম অনুমোদন করার ক্ষমতা তখন দলীয় চেয়ারপারসনকে দেয়া হয়।

এ প্রসঙ্গে কাউন্সিলের পর গত ২১ মার্চ রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘দলের ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলে গঠনতন্ত্রে ‘এক নেতার এক পদের বিধান যুক্ত করার সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত হয়েছে। আমাদের যাদের দ্বিতীয় পদ আছে, এটি (এক নেতার এক পদের বিধান) চালু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমরা প্রত্যেকে পদত্যাগ করব। একাধিক পদে যারা আছেন তারা এক পদে বহাল থেকে অন্য পদগুলো স্বেচ্ছায় ছেড়ে দেবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘চেয়ারপারসন যদি মনে করেন, কোনো একটি সুনির্দিষ্ট জেলায় অথবা মহানগরে অথবা অঙ্গসংগঠনে কোনো বিশেষ ব্যক্তিকে সাময়িকভাবে অতিরিক্ত পদে রাখা প্রয়োজন, তাহলে তিনি তা করতে পারবেন। কাউন্সিল তাকে সেই ক্ষমতাটুকু দিয়েছে।’

জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির একজন কেন্দ্রীয় নেতা বলেন, ‘রুহুল কবির রিজভীকে কেন্দ্রীয় দপ্তরের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এটি কোনো পদ নয়। তিনি দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব।’






মন্তব্য চালু নেই