মেইন ম্যেনু

বিএনপি করার কারণে ৭ বছর ভিটে ছাড়া রবিউল মেম্বর

বিএনপি করার অপরাধে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার সুরাট ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার রবিউল ইসলাম গত সাত বছর ধরে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। বাড়িতে না থাকার কারণে তার বসত বাড়ি নষ্ট হয়ে গেছে। দেখলে মনে হবে ভূতের বাড়ি।

সরেজমিন পরিদর্শনকালে গ্রামবাসি জানায়, রবিউল মেম্বর কল্যানপুর গ্রামের মোমিন সরদারের ছেলে। তিনি সুরাট ইউনিয়নের ৪ নাম্বার ওয়ার্ডের নির্বাচিত মেম্বর ছিলেন। ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর তার উপর জুলুম নির্যাতন বেড়ে যায়। বিএনপি করার কারণে প্রতিপক্ষরা একের পর এক হত্যার হুমকী দিতে থাকে। এক পর্যায়ে তিনি গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে যান।

এদিকে বাড়ি ঘরে উঠতে না পারায় রবিউল মেম্বরের মাঠের চাষাবাদ বন্ধ হয়ে গেছে। পরিবারটি মানবেতর জীবন যাপন করছেন। প্রান ভয়ে তার স্ত্রী স্বপ্না বেগম দুই সন্তান সজিব ও রিমিকে নিয়ে গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে বাবার বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন।

পুলিশের কাছে অভিযোগ করলে জুলুম নির্যাতন আরো বাড়তে পারে এমন আশংকায় পরিবারটি আইনের আশ্রয় নিতে পারছে সাংবাদিকদের জানানো হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই