মেইন ম্যেনু

বিএসএফ’র নির্যাতনে বাংলাদেশী রাখাল নিহত

নওগাঁর সাপাহার সীমান্তে বিএসএফ’র নির্যাতনে বাংলাদেশী গরু ব্যাবসায়ীর এক রাখাল নিহত হয়েছে। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলার কলমুডাঙ্গা সীমান্তের ২৩৭ নং মেইন পিলার এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।
এলাকাবাসী ও নিহত রাখালের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে অন্যান্য দিনের মত ওই রাতে উপজেলার বলদিয়াঘাট কলমুডাঙ্গা গ্রামের ইসলাম আলীর পুত্র শফিকুল ইসলাম (২৮) ভারতের অভ্যস্তরে গরু আনতে যায়।

বুধবার ভোরে সে অন্যান্য রাখালদের সাথে দেশে প্রবেশ করার সময় ভারতের আদাডাঙ্গা ৩১ বিএসএফ ক্যাম্পের টহলরত যোয়ানরা তাদের পিছু ধাওয়া করলে অন্যান্যরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও শফিকুল তাদের হাতে ধরা পড়ে। পরে বিএসএফ’রা তার উপর উপর্যুপরি নির্যাতন চালায়। নির্যাতনের এক পর্যায়ে সে গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়লে বিএসএফ’রা তাকে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতীয় রাস্তার ৫ নং লেদা ব্রীজের নিকট বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে সংবাদ পেয়ে তার পরিবারের লোকজন ভোরে সেখান থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্ের নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কলমুডাঙ্গা বিজিবি ক্যাম্পের ক্যাম্প কমান্ডার আব্দুল আওয়াল খানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা এ বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান। বিএসএফ’র অমানুষিক নির্যাতনে বাংলাদেশী রাখালের মৃত্যুর বিষয়ে বিজিবির এ ধরনের এড়িয়ে যাওয়া বক্তব্যকে এলাকাবাসী কর্তব্যে অবহেলা বলে মনে করেন।

অপর দিকে ১৪ ব্যাটালিয়ান বিজিবি ক্যাম্পের উপ-অধিনায়ক মেজর ইকবাল হাসান এর সাথে কথা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন যে, যেহেতু তার লাশটি বাংলাদেশের অভ্যস্তরে একটি হাসাপাতালে রয়েছে সেহেতু বিষয়টির তদস্ত করে দেখা হচ্ছে তার পরেও এ বিষয়ে বিজিবির পক্ষ থেকে বিএসএফ’কে পত্র দিয়ে পতাকা বৈঠকের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই