মেইন ম্যেনু

বিকল্প ভাবছে না বিএনপি

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ৫ জানুয়ারি রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেই সমাবেশ করতে চায় দেশের বৃহৎ দল বিএনপি। এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো বিকল্প ভাবছে না দলটি। তাদের আশা, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) শেষ পর্যন্ত সমাবেশের অনুমতি দেবে।

রোববার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এ কথা জানান দলটির কেন্দ্রীয় দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বিএনপিসহ অধিকাংশ রাজনৈতিক দল সে নির্বাচন বর্জন করে। নির্বাচনের পর থেকেই বিএনপি বলে আসছে, ৫ জানুয়ারির ওই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে দেশের গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে।

তাই গত বছরের মতো এবারও ৫ জানুয়ারি রাজধানীতে সমাবেশের ঘোষণা দেয় দলটি। সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশের অনুমতি চেয়ে বিএনপির পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে আবেদন করা হলেও এখনো পর্যন্ত সমাবেশের অনুমতি দেয়া হয়নি।

শনিবার বিএনপির গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়ার নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ডিএমপিতে যান। কিন্তু ডিএমপির পক্ষ থেকে তাদেরকে অনুমতির ব্যাপারে কিছুই জানানো হয়নি।

এদিকে দুপরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক অনুষ্ঠানে সমাবেশের অনুমতির বিষয়ে ডিএমপির কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়াকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমাদের কাছে প্রধান দু’দলই আবেদন করেছে। ৫ জানুয়ারি বিএনপি এবং আওয়ামী লীগ একই জায়গায় সমাবেশের অনুমতি চাওয়ায় সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিবেচনায় ডিএমপি এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। তবে সাংঘর্ষিক কোনো কর্মসূচি দেখলে, আমরা কাউকেই সমাবেশ করতে দেবো না। এ বিষয়ে প্রয়োজনে দুই দলের সঙ্গেই কথা বলা হবে।’

তিনি বলেন, ‘এ জন্য একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। ডিএমপির রমনা জুনের ডিসি এবং রমনা থানার ওসিকে প্রধান করে ওই কমিটি গঠন করা হয়। তারা আমামীকাল প্রতিবেদন জমা দেবেন। প্রতিবেদন পেলেই সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।’






মন্তব্য চালু নেই