মেইন ম্যেনু

বিক্ষোভকারীদের ‘হারাম’ বললেন নাজিব

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক তার পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ আয়োজনকারীদের ‘হারাম’ (নিষিদ্ধ) বলে অভিহিত করেছেন।

৭০০ মিলিয়ন ডলার রাষ্ট্রীয় অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে নাজিব রাজাকের বিরুদ্ধে শনিবার ও রোববার বিক্ষোভ করেছে গণতন্ত্রপন্থিরা।

৩১ আগস্ট মালয়েশিয়ার স্বাধীনতা দিবস। ১৯৫৭ সালে ব্রিটেনের উপনিবেশ থেকে বেরিয়ে স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে দেশটি। স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে টেলিভিশন ভাষণ দেওয়ার সময় নাজিব রাজাক বিক্ষোভ আয়োজনকারীদের হারাম বলে অভিহিত করেন।

নাজিব রাজাক তার ভাষণে মালয়েশীয়দের শান্তিপূর্ণ জাতি হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, এ দেশে বিক্ষোভের কোনো প্রয়োজন নেই।

কিন্তু বিক্ষোভকারীরা বলছে, দেশের অব্যবস্থাপনায় ক্ষুব্ধ মালয়েশীয়রা। নেতৃত্বে পরিবর্তন দরকার।

রোববার কুয়ালালামপুরে স্বাধীনতা স্কয়ারে অবস্থান করে বিক্ষোভকারীরা। একপর্যায়ে সেখানে তারা শুয়ে ও বসে বিক্ষোভ দেখায়। তবে অধিকাংশ সময় উত্তাল ছিল স্বাধীনতা স্কয়ার। এই অবস্থায় নাজিব রাজাকের পদত্যাগ চেয়ে মুহুর্মুহু স্লোগান দিতে থাকে তারা।

আজরুল খালিব নামে একজন বিক্ষোভকারী বলেছেন, ‘আমি জানি রাতারাতি হয়তো কোনো পরিবর্তন হবে না। কিন্তু একটি নতুন মালয়েশিয়া গড়ার প্রক্রিয়ায় অংশীদার হয়ে থাকতে চাই আমি।’

এদিকে স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে নাজিব রাজাক দেশবাসীকে আরো ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন। রাষ্ট্রীয় অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ অস্বীকার করে বিক্ষোভকারীদের শান্ত হতে বলেছেন তিনি।






মন্তব্য চালু নেই