মেইন ম্যেনু

বিজিবি-গরু ব্যবসায়ী সংঘর্ষে গুলিবর্ষণ, নিহত ১

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলায় গরু ব্যবসায়ীর সঙ্গে সীমান্তরক্ষা বাহিনী বিজিবির সদস্যদের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে একজন নিহত হয়েছে। আরো দুইজন গুলিবিদ্ধ হয়েছে বলে জানা গেছে।

মহেশপুর উপজেলার ভারত সীমান্ত এলাকা মাটিলা গ্রামে শনিবার সন্ধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে গরু আনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় গরু ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যদের সংঘর্ষ বাধে। এ সময় গুলিবিদ্ধ রফিকুল ইসলাম (৩৫) মারা যায়।

নিহত রফিকুল ইসলাম মাটিলা গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে। গুলিবিদ্ধ একজন মাটিলা গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে ফিরোজ। তিনি বুকে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। তবে তার মৃত্যুর খবর এলাকায় প্রচার হচ্ছে।

বিজিবি জানায়, সন্ধ্যায় মহেশপুর সীমান্তের জলুলী বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা মাটিলা সীমান্তে টহল দিচ্ছিল। এ সময় একদল ব্যবসায়ী ভারত থেকে অবৈধভাবে গরু নিয়ে বাংলাদেশে ঢোকার চেষ্টা করে। চ্যালেঞ্জ করলে গরু ব্যবসায়ীরা বিজিবি সদস্যদের উপর ইট-পাটকেল, লাঠি-সোঁঠা, রাম দা নিয়ে হামলা চালায়। জীবন রক্ষার্থে বিজিবি সদস্যরা তিন রাউন্ড গুলি ছোড়ে। রফিকুল ইসলাম নামে একজন গুলিবিদ্ধ হয়। স্থানীয় ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

গ্রামবাসী জানান, গুলিবিদ্ধ ফিরোজকে চিকিৎসার জন্য যশোর নিয়ে যাওয়ার পথে মহেশপুর উপজেলার রুলি নামক স্থানে পৌঁছালে তিনি মারা গেছেন। গুলিবিদ্ধ অপরজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ সাইদুল ইসলাম শাহিন বলেন, গুলিতে একজনের মৃত্যুর খবর পেয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে জলুলী সীমান্ত এলাকায় গুলি হয়েছে। তিনি ঘটনাস্থলের দিকে যাচ্ছেন।

মহেশপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশাফুর রহমান বলেন, সীমান্তে দুইজন গ্রামবাসী নিহত হওয়ার খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন।

গুলিতে তিন গ্রামবাসী হতাহতের ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। বিজিবি সদস্যরা বাজারঘাট থেকে লোকজনকে বাড়ি যেতে বলছে।






মন্তব্য চালু নেই