মেইন ম্যেনু

বিজেপি নেতার বাড়িতে গোপন বৈঠক সুন্দরী নায়িকার, কেন জানেন?

বিজেপি’র রাজ্য এবং জাতীয় স্তরের নেতারা জিডি ব্লকের ওই বাড়িতে একাধিকবার বৈঠক করেছেন। সোমবার রাত ৯টা নাগাদ সেখানেই রাজ্য বিজেপি’র শীর্ষস্তরের এক নেতার সঙ্গে বৈঠক হয় নায়িকার। দলীয় রাজনীতির সমীকরণে সম্প্রতি কিছুটা পিছিয়ে পড়েছিলেন ওই নেতা। কিন্তু সাম্প্রতিক বেশ কিছু ঘটনায় দলে সমীকরণ কিছুটা বদলেছে। দিল্লির নেতাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়িয়ে প্রত্যাবর্তনের পথে অনেকটা এগিয়েছেন তিনি।

বিজেপি’র নেতাদের সঙ্গে বৈঠক টলিউডের এক ‘প্রভাবশালী’ নায়িকার!
ঘটনাচক্রে, রোজভ্যালি বিতর্কে ওই নায়িকার নাম ইদানীং বহুচর্চিত। সোমবার রাতে রাজ্য বিজেপি’র শীর্ষস্তরের এক নেতার সঙ্গে তিনি বৈঠক করায় অতএব দলেই জল্পনা শুরু হয়েছে। বিধাননগরের জিডি ব্লকে এক দলীয় নেতার বাড়িতে বৈঠকটি হয় বলে সূত্রের খবর। বিধাননগরের ওই বাড়ির মালিক তথা বিজেপি নেতাকে এ বিষয়ে মঙ্গলবার প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘‘অন্য কথা বলুন।’’

প্রসঙ্গত, বিজেপি’র রাজ্য এবং জাতীয় স্তরের নেতারা জিডি ব্লকের ওই বাড়িতে একাধিকবার বৈঠক করেছেন। সোমবার রাত ৯টা নাগাদ সেখানেই রাজ্য বিজেপি’র শীর্ষস্তরের এক নেতার সঙ্গে বৈঠক হয় নায়িকার। দলীয় রাজনীতির সমীকরণে সম্প্রতি কিছুটা পিছিয়ে পড়েছিলেন ওই নেতা। কিন্তু সাম্প্রতিক বেশ কিছু ঘটনায় দলে সমীকরণ কিছুটা বদলেছে। দিল্লির নেতাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়িয়ে প্রত্যাবর্তনের পথে অনেকটা এগিয়েছেন তিনি। যে ঘনিষ্ঠতার নমুনা প্রকাশ্যে দেখাও যাচ্ছে।

সোমবার রাতে সেই নেতার সঙ্গে প্রায় ৪০ মিনিট বৈঠক হয় নায়িকার। সূত্রের খবর, নায়িকা বৈঠকে আশঙ্কা প্রকাশ করেন, রোজভ্যালি-কাণ্ডে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার তরফে তাঁকে নোটিস পাঠানো হতে পারে। সেক্ষেত্রে চরম কোনও পদক্ষেপ করা হবে কি না, তা নিয়ে কথা বলতে গিয়ে একসময় ভেঙে পড়েন তিনি।

রোজভ্যালি-কাণ্ডে তাপস পাল গ্রেফতার হওয়ার পর থেকে চাপ বেড়েছে কলাকুশলীদের উপর। টলিউডের অনেকেই বিজেপি’র সঙ্গে যোগাযোগ বাড়িয়েছেন। এমনকী, আলোচনার বসার জন্য তাঁদের তরফে বিজেপি নেতাদের কাছে প্রস্তাব গিয়েছে। কিন্তু সেই প্রস্তাব নাকচ করে দেওয়া হয়েছে

বলে জানিয়েছেন রাজ্য বিজেপি’র এক শীর্ষ নেতা। তাঁর মন্তব্য, ‘‘অনেকেই কথা বলতে চাইছেন। কিন্তু আমরা তাঁদের পাত্তা দিতে চাই না।’’ যদিও সূত্রের খবর, বিজেপি’র তরফে টলিউডের সঙ্গে যোগাযোগ রাখেন, এমন এক নেতার মাধ্যমেই যোগাযোগ শুরু করেন নায়িকা। যার ফল সোমবারের বৈঠক।

রোজভ্যালি-কাণ্ডে গ্রেফতারি শুরু হওয়ার পর বিজেপি’র রাজ্য নেতাদের একাংশ আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন, সারদা তদন্তের মতো রোজভ্যালি তদন্ত যেন আচমকা থিতিয়ে না যায়! অথচ তাঁদেরই একজন বিতর্কিত নায়িকার সঙ্গে বৈঠক করছেন!

এ প্রসঙ্গে বিজেপি’র একাংশের মত, কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সবুজ সংকেত ছাড়া এই বৈঠক হতে পারে না। তাই এক্ষেত্রে রাজ্য দলের ওই নেতাকে শুধুমাত্র কাঠগড়ায় তোলার অর্থ নেই। বরং এমন বৈঠক হয়ে থাকলে কেন্দ্রীয় নেতারাই ‘দায়ী’।

এক নেতার কথায়, ‘‘ভুয়ো অর্থলগ্নি সংস্থার সঙ্গে যোগ থাকা অভিনেত্রীকে নিয়ে বৈঠক! এরপর যদি সব থিতিয়ে যায়, এ রাজ্যের রাজনীতিতে বিজেপি পিছিয়ে পড়বে। এটা নেতাদের ভাবা উচিত।’’

প্রসঙ্গত, ওই নায়িকা বিজেপি’তে যোগ দিতে পারেন বলে এর আগে একাধিকবার গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল। তবে কি রোজভ্যালি বিতর্ক থেকে ‘মুক্তি’ পেতেই বিজেপি বৃত্তে আবার যাতায়াত শুরু করলেন অভিনেত্রী?জল্পনা বাড়ছেই। -এবেলা।






মন্তব্য চালু নেই