মেইন ম্যেনু

বিদায়ী টেস্টে দ্রুততম শতকের বিশ্বরেকর্ড ম্যাককালামের

বিদায়ী টেস্টে দ্রততম শতক করে বিশ্বরেকর্ড গড়লেন নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালাম।

শনিবার ক্রাইসচার্চে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাত্র ৫৪ বলে শতরান করার রেকর্ড গড়েন নিউজিল্যান্ডের এই দুধর্ষ ব্যাটসম্যান। এর ফলে পাকিস্তানের মিসবাহ উল হক ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান স্যার ভিভ রিচার্ডসের গড়া ৫৬ বলে দ্রুত শতকের রেকর্ড ভাঙেন ম্যাককালাম।

টসে জিতে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্মিথ নিউজিল্যান্ডকে প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান।

ইনিংসের ২০ ওভারের মধ্যে মাত্র ৩২ রানে তিন উইকেট খুঁইয়ে ধুঁকতে থাকে কিউইরা। মনে হচ্ছিল এ টেস্টেও লজ্জাজনক পরাজয়ের দিকে এগুচ্ছে নিউজিল্যান্ড। কিন্তু ম্যাককালাম খেলতে নেমে ওলট-পালট করতে থাকেন এসব হিসাব-নিকাশ, পাল্টাতে থাকেন ইতিহাসের পাতাও। উইকেটের চতুর্দিকে অসি বোলারদের পিটিয়ে মাত্র ৩৪ বলে তুলে নেন অর্ধশতক। কিন্তু কে জানে সামনে অস্ট্রেলিয়ার জন্য আরও কঠিন সময় অপেক্ষা করছিল। অর্ধশতকের পর ম্যাককালাম ব্যাট যেন আরও চওড়া হয়ে উঠে। অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের গলির বোলার বানিয়ে পরের অর্ধশকটি তুলে নেন মাত্র ২০ বলে। এর সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বরেকর্ডের ইতিহাসের পাতায় জায়গা দখল করে নেন কিউই অধিনায়ক। দ্রুততম শতক গড়ার পথে তিনি ১৬টি চার ও চারটি ছক্কা পেটান।

শতকের পর ভালোভাবেই দ্রুততম দ্বিশতকের দিকে এগোচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু ৪৬তম ওভারের প্রথম বলেই প্যাটিনসনের বলে লায়নের হাতে ক্যাচ দিলে শেষ হয় তার টর্নেডো ইনিংস।

আউট হওয়ার আগে ম্যাককালাম করেন ৭৯ বলে ১৪৫ রান। তার ইনিংসে ছিল ২১টি চার ও ছয়টি ছক্কা।

ম্যাককালাম ছাড়া নিউজিল্যান্ডের পক্ষে কোরি অ্যান্ডারসন করেন ৭২ রান।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে নাথান লায়ান তিন উইকেট নেন।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ আট উইকেটে ২৯৭ রান।






মন্তব্য চালু নেই